পরবাসে নতুন প্রজন্মকে শেকড় সন্ধানি করে তুলতে বাঙালির নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতি চর্চা সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে হবে। এজন্য বাঙালি কমিউনিটি তথা ব্যক্তি ও পারিবারিক পর্যায়ে দেশীয় সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের বিকাশ ও লালন প্রয়োজন।

রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্যারিসের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘শেকড়ের সন্ধানে-ফ্রান্স’র তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন অতিথিবৃন্দ।
সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জামিল আহমেদ সাহেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিলওয়ার হোসেন কয়েছ, সহ-সভাপতি আবুল কাশেম, এস এ শহিদ বার তাহের, ফয়সাল ইকবাল, আজম খান, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ-ফ্রান্সের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জামিরুল ইসলাম মিয়া, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্স শাখার সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, সমাজকর্মী সেলিম ওয়াদা শীলু, কামাল মিয়া, অজয় দাস, বাংলাদেশ কালচারাল ফোরাম-ফ্রান্সের সভাপতি শাহ আলম মায়া, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক দবির মাহমুদ। উবায়দুল্লাহ কয়েস, হোসেন সালাম রহমান, সরুফ ছদিওল, বি এম সেলিম রেজা, প্যারিস-বাংলা প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক আবুল কালাম মামুন, সদস্য সচিব রাসেল আহমেদ ও সদস্য বাদল পাল প্রমুখ। এছাড়া অনুষ্ঠানে বাংলাদেশি কমিউনিটির বিভিন্ন শিক্ষা, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক অঙ্গণের বিশিষ্ট ব্যক্তির্গ উপস্থিত ছিলেন।
প্যারিসের লাকর্নভ অভারভিলেয়ের বাংলাদেশি বিডি কমিউনিটি হল-এ বর্ণিল আয়োজনে অনুষ্ঠিত বর্ষপূর্তি উৎসবে গান, আড্ডার পাশাপাশি শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা ও গ্রামীন জনপদ বিষয় স্থান পায় এসব চিত্রকর্মে।

রুপা শর্মা ও মিতালী দেবনাথের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন- শিল্পী সুমা দাস, পাপিয়া পাল টুকু, মিনাক্ষী, মিষ্টি, হেলাল, আনোয়ার ও ভয়েসব্যান্ডের শিল্পীবৃন্দ। তাদের কণ্ঠে রাধারমণ, দূর্বিনশাহ, লালন, শাহ আব্দুল করিমসহ অসংখ্য বাউল গানের সুরের মূর্ছনায় মেতে উঠেন আগত ফ্রান্সপ্রবাসী শতশত বাংলাদেশি।

এছাড়া অনুষ্ঠানে ফ্রান্সে সামাজিক-সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ের বিশিষ্ট ১০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

‌মিশ্র ফল বাগান গড়ে সফল দেবাশীষ পুরকায়স্থ