রমজান মাসের শেষ হতে আর মাত্র বাকি ১০ দিন। রমজানের শেষদিকে বিয়ানীবাজারে অধিকাংশ নিত্যপণ্যের দাম রয়েছে অরিবর্তিত। তবে কাঁচাবাজারের বিভিন্ন সবজির দাম ওঠানামা করছে। এদিকে, মুদিপণ্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম অপরিবর্তিত থাকায় সাধারণ ক্রেতাদের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে।

গত সপ্তাহের মতো এ সপ্তাহে চাল প্রতি কেজি ৩৫-৪০ টাকা, পিয়াজ প্রতি কেজি ২০ টাকা ধরে বিক্রি হচ্ছে। তবে এ সপ্তাহে রসুনের দাম কেজিতে বেড়েছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। এছাড়াও আদার দাম কিছুটা বেড়ে এখন ১০০/১১০ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে কিছুটা বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে বেশিরভাগ সবজি। তবে কাচা মরিচের দাম-উটা নামা করছে প্রতিদিনই। গত সপ্তাহে ১৫০ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হলেও শুক্রবার থেকে বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা ধরে।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও প্রতিবেদনে-  

শুক্রবার বিকেলে ও শনিবার সকালে বিয়ানীবাজার পৌরশহরের কিচেন মার্কেটে ঘুরে এ সপ্তাহের বাজারদর সংগ্রহ করা হয়েছে।

মাংসের দাম- গত সপ্তাহের তুলনায় সবজিসহ সবধরনের মাংসের দাম কমেছে। গরুর মাংস প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা এবং খাসির মাংস প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকা। প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি (সাদা) বিক্রি হচ্ছে ১৩০টাকা থেকে ১৪০ টাকা, ব্রয়লার মোরগ (লাল) প্রতি পিছ ৪৭০ থেকে ৪৯০ টাকা, ব্রয়লার কোয়েল পাখি প্রতি পিছ ৩০ টাকা, ব্রয়লার মুরগির ডিম প্রতি হালি ৩০ টাকা।

মুদিপণ্যের দাম- পেঁয়াজ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা, রসুন প্রতি কেজি ১৩৫ থেকে ১৫০ টাকা, দেশি রসুন প্রতি কেজি ৮০ টাকা, আদা প্রতি কেজি ১৩০ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৫৫ থেকে ৫৭ টাকা, ডাল প্রতি ৬২ টাকা, ডাল (উন্নতমান) প্রতিকেজি ৭৫ টাকা, চানা প্রতি কেজি ৭৫ থেকে ৮৩ টাকা হয়েছে। খেজুর প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা থেকে শুরু করে ১৬০ টাকা দরে। এছাড়া চাল, চানার ডাল, মশলা ও সয়াবিন তেলসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম স্বাভাবিক থাকলেও উত্তাপ ছড়াচ্ছে মার্কস দুধ। প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ২০-২৫ টাকা, প্রতি ৫০০ গ্রামের দুধের প্যাকেট বিক্রি হচ্ছে ২৫৫ টাকা দরে।

কাঁচা বাজারে সবজির দাম- এ সপ্তাহে অনেকটা কমেছে সবধরনের সবজির দাম। মরিচ প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা, টমেটো প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা, বেগুন প্রতি কেজি ৪০ টাকা, লেবু প্রতি হালি ৩০ টাকা, শসা প্রতি কেজি ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, রমজানে শুরুতে সবজি ও মাংসের দাআমের উর্ধগতি থাকলেও এখন তা হ্রাস পাওয়ায় ক্রেতাদের মধ্যে সন্তুষ্টি দেখা গেছে।

পৌর কিচেন মার্কেটে আসা এক ক্রেতা জানান, আগে যেখানে পেয়াজ প্রতি কেজি সাড়ে ২৩/২৪ টাকা দিয়ে কিনেছি। আজ বাজারে এসে দেখি পেয়াজ প্রতি কেজিতে ৩/৪ টাকা কমে ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। দাম কমেছে দেখে ১০ কেজি পেয়াজ কিনতে পারলাম।