পাকিস্তান আমলে এলাকাবাসীর যাতায়াতের জন্য বিয়ানীবাজার উপজেলার তিলপাড়া ইউনিয়নের মাটিজুরা গ্রামের বড়খালের উপর ১০ ফুট দৈর্ঘের একটি কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছিল। দীর্ঘ প্রায় দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে জীর্ণশীর্ণ হয়ে পড়া কালভার্টটি সংস্কারহীন থাকায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে মাটিজুরাসহ ইউনিয়নের কয়েক গ্রামের হাজারো অধিবাসীদের।

এমন দূর্ভোগ-দুর্দশার চিত্র ফুটে উঠেছিল পূর্ব সিলেটের প্রথম ও পুর্ণাঙ্গ আইপি টেলিভিশন ‘এবি টিভি’ এবং  বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রথম অনলাইন পত্রিকা ‘বিয়ানীবাজার নিউজ২৪’ এর প্রতিবেদনে। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের দৃষ্টিগোচর হলে পুরনো জীর্ণ সেই কালভার্ট ভেঙ্গে নির্মাণ করা হচ্ছে নতুন একটি কালভার্ট। আর এতে স্বস্তি ফিরেছে স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝে।

 

গত সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, পুরনো কালভার্ট ভাঙ্গা এবং বড়খালের ওপর এলাকাবাসীর যাতায়তের জন্য শ্রমিকরা কাজ করছেন। তাদের এই কাজে স্থানীয় এলাকাবাসীকে সহযোগিতাও করতে দেখা গেছে।

উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা গেছে, মাটিজুরা গ্রামের মধ্যভাগ দিয়ে বয়ে চলা বড়খালে এই নতুন কালভার্ট নির্মানের উদ্যোগ নিয়েছে স্থানীয় সরকারের প্রকৌশল বিভাগ (এলজিইডি)। চলতি অর্থবছরে জিওবি মেইন্টেন্যান্স প্রকল্পের আওতায় কালভার্টটি নির্মাণে প্রাক্কলন ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা। ২০২১ সালের শুরুর দিকেই কালভার্টটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে উপজেলা প্রকৌশল অফিস সূত্রে জানা গেছে।

 

তিলপারা ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান বলেন, মাটিজুরা গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল জীর্ণ এই কালভার্টটি সংস্কার করার। কিন্তু প্রথমে জেলা পরিষদের একটি প্রজেক্ট পাঠালেও সবশেষে স্থানী এলজিইডি এই কালভার্ট পুনঃনির্মাণে বরাদ্ধ দিচ্ছে। তিনি বলেন, কালভার্টটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে গ্রামীণ এই জনপদের সড়ক যোগাযোগের ক্ষেত্রে যুক্ত হবে নতুন মাত্রা।

মাহবুবুর রহমান আরও বলেন, উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরবর্তী এই গ্রামের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে জীর্ণ এই কালভার্টটি। আর তাই কালভার্টটির নির্মাণ কাজ দ্রুত শেষ করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি-মার্চের দিকে কালভার্টটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে এবং এলাকাবাসীর দুর্ভোগে কথা বিবেচনা করে দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত করা হবে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

এবি টিভিতে সংবাদ প্রচার : নতুন করে নির্মাণ করা হচ্ছে বিয়ানীবাজারের সেই কালভার্ট