কথায় আছে- মাছ যখানে বাজারও সেখানে। এ কথাটা প্রমাণিত হলো বিয়ানীবাজার পৌরশহরে দীর্ঘদিন পর মাছ ও সবজি বাজার পাশাপাশি পুনঃস্থাপন হওয়ার মধ্যে দিয়ে। পৌরশহরে মাছ বাজার পুনঃস্থাপন হওয়ার সপ্তাহ গড়ালেও বুধবার ও বৃহস্পতিবার শহরের প্রধান সড়ক থেকে মোরগগলির জুবেদ আলী মার্কেটের মাছ বাজারের পূর্ব পাশের গলিতে সবজি বাজারও পুনঃস্থাপন করে নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

দীর্ঘদিন পর পৌরশহরে মাছ ও সবজি বাজার পাশাপাশি বসায় ব্যবসায়ীরাসহ স্থানীয় বাসিন্দা ও সাধারণ ক্রেতারা খুশি। একসাথে মাছ ও সবজি কেনার সুযোগ পাচ্ছেন জেনে তাদের মধ্যে আনন্দের মাত্রাটাও বেড়েছে বহুগুন। এক ক্রেতা জানান, দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আমাদের দুর্ভোগ লাঘব হয়েছে। এ দুর্ভোগ লাঘবে যারা ভূমিকা রেখেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

গত সপ্তাহে মাছ ব্যবসায়ীরা পৌরশহরে ফিরলেও তারা পৌর কিচেন মার্কেটে উঠেন নি। পৌর মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর মোরগ গলির পূর্বপাশের ব্যক্তি মালিকাধীন যে জায়গা ভাড়া নিয়েছেন সেখানেই তাদেরকে বসানো হয়েছে। মাছ বাজার শহরে ফেরার এক সপ্তাহ পর প্রধান সড়ক থেকে মাছ বাজারের পাশের একটি গলিতে বসার সুযোগ দেয়া হয়েছে সবজি ব্যবসায়ীদের। বুধবার বিকেল ও বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ২০-২৫জন ব্যবসায়ীকে নানা রকম সবজির পসরা সাজিয়ে বসতে দেখা গেছে।

এদিকে, এর আগে মোরগগলির জুবেদ আলী মার্কেটের পূর্ব পাশে সবজি ব্যবসায়ীদের জন্য অস্থায়ীভাবে টিনের চালা তৈরী করে ব্যবসায়ীদের বসার ব্যবস্থা করে দিয়েছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ।

বিয়ানীবাজার পৌর মেয়র মোঃ আব্দুস শুকুর বলেন, সকলের সহযোগিতায় মাছ ও সবজি বাজারের সৃষ্ট সমস্যা নিরসন হয়েছে। ব্যবসায়িদের সবরকম সুযোগ-সুবিধা দিতে পৌর কর্তৃপক্ষ প্রস্তুত রয়েছে। তিনি বলেন, মাছ ও সবজি বাজার পাশাপাশি পুনঃস্থাপনে সহযোগিতা করার জন্য সকল পর্যায়ের ব্যবসায়ী, উপজেলা ও পৌরবাসীর কাছে কৃত্তজ্ঞতা জানাচ্ছি।