বিয়ানীবাজার পৌরসভা আওয়ামী লীগের আয়োজনে টানা তিন দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী  উদযাপিত হয়েছে। গত ২৪  মার্চ থেকে শুরু হওয়া এ অনুষ্ঠানের সমাপনী ঘতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের মধ্যরাতে। সিলেট জেলার মধ্যে বিয়ানীবাজার পৌরসভা আওয়ামী লীগই একমাত্র তিন দিনব্যাপী মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করেছে।

শুক্রবার অনুষ্ঠানমালার সমাপনী দিনে বিকাল ৩টায় একটি বর্ণাঢ্য র‍্যালি শোভাযাত্রা পৌরশহর প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী সামসুল হক ও সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদ। এতে ৯টি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

এরপর পিএইচজি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিকালে সাড়ে ৩টায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সামছুল হকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এবাদ আহমদের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর।

আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশণা সম্পাদক এডভোকেট আব্বাস উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ জাকির হোসেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জামাল হোসেন, পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ নাজিম উদ্দীন প্রমুখ।

এদিন সন্ধ্যায় স্বাধীনতার ৫০ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের শিল্পীরা দেশাত্মবোধক, বাউল ও আধুনিক গান পরিবেশন করেন।

এদিকে, এর আগে শুক্রবার ভোরে পৌরশহরের মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি এবং খাসা শহীদ টিলাস্থ বিয়ানীবাজারের কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে পৌর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারবর্গ, ২৫শে মার্চ বুদ্ধিজীবী গণহত্যা ও স্বাধীনতা সংগ্রামে নিহত শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

শ্রদ্ধা, গৌরব ও উৎসবে বিয়ানীবাজারে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন