প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাগুরুকে নির্মাণ করে দিয়েছেন একটি পাকাঘর। নাম দেয়া হয়েছে ‘আলোর ভুবন’ । প্রায় চার শতক জমির উপর নির্মিত গৃহে তিনটি বেড রুম, দুটি বাথরুম, একটি রান্নাঘর ও একটি ষ্টোর রোম রয়েছে। অবসরে যাওয়া এ শিক্ষক একটি জীর্ণ কুটিরে বসবাস করতেন। এ বিষয়টি প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের নজরে আসলে তারা পাকা ঘর তৈরী করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

গৃহ নির্মাণে মোট ব্যয় হয়েছে ১৫ লক্ষ টাকা। নিরবে এই কাজটি করেছেন যুক্তরাস্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও বাংলাদেশে বসবাসরত কয়েকজন শিক্ষার্থী।

শিক্ষক আব্দুন নূর বিয়ানীবাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ কয়েকটি স্কুলে প্রধান শিক্ষক হিসাবে শিক্ষকতা করে অবসরে আছেন।

১০ আগস্ট শুক্রবার উদ্যোক্তাদের উদ্যোগে প্রিয় স্যারের জলঢুপ দক্ষিণ পাড়িয়াবহর এর নির্মিত বাড়ীতে এক মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন। প্রিয় শিক্ষকের বাড়ি উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের পাহাড়িয়া বহরে এক আবেগপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করে। সবার চোখ ছিল আনন্দ অশ্রুতে ভেজা।

এ সময় উদ্যোক্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাস্ট্র প্রবাসী জাকারিয়া আহমদ, যুক্তরাজ্য প্রবাসী মুস্তাফিজুর রহমান, ব্যবসায়ী মনসুরুল হক ও খায়রুল আলম শামীম। পুরো কাজটির সমন্ধয়ে ছিলেন কবীর আহমদ। সবার বাড়ী বিয়ানীবাজার উপজেলায়।

স্যাররে প্রতি কৃতজ্ঞতার কাজটি করতে যারা সহযোগিতা করেছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।