সিলেটের জকিগঞ্জে খলাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা দীপ্তি বিশ্বাস এর অপ্রস্তুত ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ায় জকিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তাপাদারসহ জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় সিলেট জেলা প্রশাসক অফিস সম্মুখে সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষক পরিবারের উদ্যোগে এক মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়।

সিলেট জেলা প্রাথমিক শিক্ষক পরিবারের প্রমথেষ দত্ত’র পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রব হাছনু, জেসমীন সুলতানা, মো. আবুল হোসেন, বিপ্লব পুরকায়স্থ, প্রমথেষ দত্ত, গণেশ পাল দিপু, সুমন তালুকদার, নিকোন দাস, মো. শহীদুল্লাহ, আতাউর রহমান, স্বপন তালুকদার, মিটন চ ন্দ্র দাস, শেখ নুরুল ইসলাম, বাবুল কান্ত দাস, মাহবুবুর রহমান শিবলু, বিপ্লবী পাল, এলিজা বেগম, আমীনা বেগম, জান্নাতুল ফেরদৌস, শামীম আহমদ, সৌমিত্র দাস, আব্দুল হাই, আব্দুল মজিদ, শাহীন আহমদ, শহীদুর রহমান রাজ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দিপ্তী বিশ্বাসের ছবি অপ্রস্তুত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে সারা বিশ্বের কাছে গোটা শিক্ষক সমাজকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও মানহানী ঘটনা হয়েছে। আমরা প্রাথমিক শিক্ষক পরিবার আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে জকিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তাপাদারের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। অনতিবিলম্বে ইকবাল আহমদ তাপাদারকে আইনের কাঠগড়ায় দাড় করিয়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। তা না হলে বাংলাদেশের শিক্ষা সমাজ রাজপথে আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে।

এরপর শিক্ষকবৃন্দ সিলেট জেলা প্রশাসকের নিকট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।