জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ তাপাদারকে আবারও বরখাস্ত করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে তাঁকে বরখাস্তের আদেশ জারি করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ড. জুলিয়া মঈন স্বাক্ষরিত গত ২৫ এপ্রিলের এক নির্দেশে ইকবাল আহমদের বরখাস্তের আদেশ জারি করা হয়।

সরকার বিরোধী প্রচারণা, দলীয় ও ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি ব্যবহার, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি, ২০১৫ সালের ৫ জানুয়ারি নাশকতামূলক কাজে নির্দেশনা প্রদানের অভিযোগে তাকে অপসারণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইকবাল আহমদ বলেন, যেসব অভিযোগে আমাকে বরখাস্ত করা হয়েছে সবই মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে আমাকে অপসারণ করা হয়েছে। অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় তার বিরুদ্ধে সাজানো অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ ব্যাপারে তিনি উচ্চ আদালতে যাবেন বলেও মন্তব্য করেছেন।

ইকবাল আহমদ জকিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক আহবায়ক। ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর একটি ফৌজদারি মামলার অভিযোগপত্র আদালতে গৃহীত হওয়ায় মন্ত্রণালয় থেকে তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল। তবে উচ্চ আদালত মন্ত্রণালয়ের আদেশ স্থগিত করেছিল।