কানাইঘাট উপজেলার সুরইঘাট সীমান্ত দিয়ে চোরাইপথে আসা তিন লক্ষাধিক টাকার ভারতীয় অবৈধ চালের চালান আটক করেছে জকিগঞ্জ থানা পুলিশ। রোববার (১৪ মার্চ) দিবাগত রাত ৩ টা ১৫ মিনিটের সময় সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের শাহগলি বাসষ্টেশনে চেকপোস্ট বসিয়ে পৃথক দু’টি পিকআপ গাড়িতে থাকা ১০৫ বস্তা চাল আটক করে পুলিশ। এ সময় পিকআপ দু’টির চালক ও হেলপার সহ ৩ জনকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার টেকর নয়াখেল এলাকার আলাউর রহমানের ছেলে মোঃ জামিরুল ইসলাম (২৪), আব্দুল গণীর ছেলে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (২১) ও লুৎফুর রহমানের ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২০)।

এ ঘটনায় জকিগঞ্জ থানার এসআই মোহন রায় বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামী করে নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন। উপরোক্ত বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সাব ইন্সপেক্টর মোহন রায়। তিনি জানান, আটক ও পলাতক আসামীরা সরকারের শুক্ল বা কর ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে চোরাইপথে উক্ত চাউল এনে ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি (১) ধারার অপরাধ করেছে। তাই এ সংক্রান্তে জকিগঞ্জ থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, জকিগঞ্জ থানার এসআই মোহন রায়ের নেতৃত্বে একদল পুলিশ জকিগঞ্জ উপজেলার শাহগলি বাসষ্টেশনে চেকপোস্ট বসিয়ে দু’টি পিকআপ গাড়ি যার নাম্বার যথাক্রমে ঢাকা মেট্রো -ন-১৫-৬০৩৯ ও ঢাকা মেট্রো -ন-১৬-৪৯২০ সন্দেহ জনকভাবে আটক করেন। এ সময় গাড়ি দু’টিতে তল্লাশীকালে একটি গাড়িতে হলুদ রংয়ের প্লাস্টিকের ৫০ বস্তা চাউল ও অপর গাড়িতে ৫৫ বস্তা চাউল দেখে পুলিশ গাড়ি চালকের নিকট চাউল ক্রয় বিক্রয়ের রশিদ চাইলে রশিদ প্রদানে ব‍্যার্থ হয়।

এসময় আটককৃতরা উপস্থিত লোকজনের সামনে পুলিশকে জানায়, কানাইঘাট উপজেলার দক্ষিণ লক্ষীপ্রসাদ এলাকার বাসিন্দা ও কানাইঘাট পূর্ব বাজারের জনৈক চাউল ব‍্যবসায়ী আব্দুল্লাহ ভারত থেকে সুরইঘাট সীমান্ত দিয়ে চোরাইপথে উক্ত চাউল বাংলাদেশে নিয়ে আসে এবং তা বিভিন্ন স্থানে পাচার করে।

মোল্লাপুর ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী দেলওয়ার হোসেন এর মতবিনিময়