সিলেটে পূবালী ব্যাংকের জকিগঞ্জ শাখায় ছাদের একটি অংশ ধসে পড়েছে। এর পরেও ঝুঁকি নিয়ে চলছে কার্যক্রম। তাই যেকোনো মুহূর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

জানা গেছে, গত ১১ জুন পূবালী ব্যাংকের জকিগঞ্জ বাজার শাখার ছাদের একাংশ ধসে পড়ে, মেরামতের জন্য ১২ জুন থেকে ১৬ জুন পর্যন্ত তখন ব্যাংকিং কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। কিন্তু ১৭ জুন থেকে আবারও ধসে পড়া অংশ ঝুঁকিপূর্ণভাবে বাঁশ দিয়ে আটকে চলছে ব্যাংকিং কার্যক্রম। এমনকি বাঁশ দিয়ে আটকানো ছাদের নিচে বসেই অফিস করছেন কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে পূবালী ব্যাংকের সিলেটের আঞ্চলিক ম্যানেজার জিয়াউল হক জানান, ইঞ্জিনিয়ারদের পরামর্শে সাময়িক সময়ের জন্য বাঁশ ও কাঠ দিয়ে ধসে পড়া অংশ মেরামত করা হয়েছে। এই শাখাটি অচিরেই অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হবে। তবে গ্রাহকদের নিরাপত্তার জন্য আপাতত আরো অধিকতর ব্যবস্থা নিতে ঢাকা থেকে শুক্রবার প্রকৌশলীদের একটি দল আসার কথা রয়েছে।

জকিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজন কুমার সিংহ এ বিষয়ে বলেন, ধসে পড়া ছাদ এভাবে মেরামত করে ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু রাখা ঠিক নয়। তবে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজবার্ষিকী অন্বেষা'র মোড়ক উন্মোচন