টানা ৪০ দিন তাকবীরে উলার সাথে ৫ ওয়াক্ত জামাতে নামাজ আদায় করে সাইকেলসহ নানা পুরস্কার পেল জকিগঞ্জের ৭৮ জন কিশোর। শিশু-কিশোরদের নামাজের প্রতি আকৃষ্ট করতে পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছিলো উম্মতে মোহাম্মদী সেবা ফাউন্ডেশন জকিগঞ্জ। সেই ঘোষণায় আকৃষ্ট হয়ে টানা ৪০ দিন তাকবীরে উলার সাথে জামাতে নামাজ পড়ে পুরস্কার জিতে নিয়েছে জকিগঞ্জের ১০৮ জন কিশোর। এরমধ্যে সাইকেল পুরস্কার পেয়েছে ১৭ জন।

উম্মতে মোহাম্মদী সেবা ফাউন্ডেশন জকিগঞ্জের উদ্যোগে জকিগঞ্জ পৌর এলাকার আনন্দপুর বায়তুন নাজাত জামে মসজিদে মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে এমনই আয়োজন হল। জানা যায়, কয়েকদিন আগে উম্মতে মোহাম্মদী সেবা ফাউন্ডেশন জকিগঞ্জ ঘোষণা দিয়েছিলেন যে, শিশু কিশোররা যদি একটানা তকবীরে উলার সাথে ৪০ দিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করে, তাহলে তাদেরকে পুরষ্কার দেয়া হবে। সে ঘোষণায় উৎসাহিত হয়ে এলাকার ৭৮ জন শিশু কিশোরই নামাজ আদায় শুরু করে। টানা ৪০ দিন নিয়মিত জামাতে নামাজ পড়েছেন হাতে শুক্রবার এমন ১৭ জনকে বাইসাইকেল ও বাকিদেরকে ক্রেস্টসহ বিভিন্ন পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।


পুরষ্কার বিতরণ উপলক্ষে আনন্দপুর বায়তুন নাজাত জামে মসজিদে মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে এক অনুষ্ঠান হয়। বায়তুন নাজাত জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি শিহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও উম্মতে মোহাম্মদি সেবা ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুশ শহীদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উম্মতে মোহাম্মদী সেবা ফাউন্ডেশনের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুছ।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জকিগঞ্জ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মুফতি আবুল হাসান। প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জকিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল আহাদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর কামরুজ্জামান কমরু, মাওলানা বিলাল আহমদ, মাওলানা মাহমুদুর রহমান রায়হান, মাওলানা মামুনুর রশীদ। এ সময় অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক আব্দুল জলিলসহ এলাকার মুরব্বি ও মুসল্লিগণ উপস্থিত ছিলেন।

শিশু-কিশোরদেরকে নামাজের প্রতি আকৃষ্ট করে মসজিদমুখি করার লক্ষ্যে উম্মতে মোহাম্মদী সেবা ফাউন্ডেশনের আয়োজিত এমন উদ্যোগ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন অনেকে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিয়ানীবাজারে আবেদনের কয়েক ঘণ্টায় নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ