জকিগঞ্জ পৌর এলাকার আনন্দপুর গ্রাম থেকে এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাক সরকারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ এ গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে। নিহত গৃহবধু আনন্দপুর গ্রামের সুহেল আহমদের স্ত্রী।

এ ঘটনায় পুলিশ নিহত গৃহবধুর শাশুড়ীকে গ্রেফতার করেছে। নিহতের ভাই হাফিজ আব্দুল ওয়াদুদ জানান, চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে বোনকে বিয়ে দিয়েছি। বিয়ের পর থেকে তার শাশুড়ী নির্যাতন করতো। আমার বোনকে হত্যা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাক সরকার জানান, গৃহবধুকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে শাশুড়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শাশুড়ী প্রায় সময় তার বধুকে নির্যাতন করতো বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে।