জকিগঞ্জ উপজেলার নয়টি ইউপি নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রির্টানিং কর্মকর্তাদের কার্যালয়ে চেয়ারম্যান ও সদস্য এবং সংরক্ষিত নারী আসন প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। এ সময় নিজ নিজ ইউনিয়ন পরিষদের স্ব-স্ব প্রার্থীদের সঙ্গে তাদের বিপুলসংখ্যক কর্মী-সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন। আগামী ৫ জানুয়ারি জকিগঞ্জের নয়টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ হবে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটাদের মধ্যে বিভিন্ন আলোচনা ও কৌতুহলের শেষ নেই। রবিবার ১৯ জানুয়ারি ছিল মনোয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। শেষ দিনে বিভিন্ন ইউপির নয়জন সদস্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। বর্তমানে নয়টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেবেন আওয়ামী লীগ, বিএনপি ঘরানার স্বতন্ত্র প্রার্থী, জাতীয় পার্টি, জমিয়ত, ইসলামী আন্দোলনসহ স্বতন্ত্র মোট ৫০ জন। সাধারন সদস্য পদে ৩৫১ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে মোট ৯৭ প্রার্থী।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, চেয়ারম্যান পদে বারহাল ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মঞ্জুরুল হামিদ চৌধুরীর প্রতীক নৌকা, জামায়াত নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ চৌধুরী মোটরসাইকেল, স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুস সবুর চৌধুরী টেবিল ফ্যান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মুক্তাউর রহমান চৌধুরী চশমা, স্বতন্ত্র প্রার্থী সুমন আহমদ চৌধুরী ঘোড়া, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী জিয়াউর রহমান চৌধুরী হাতপাখা, বিএনপি ঘরানোর প্রার্থী বুরহান উদ্দিন রনি আনারস। বীরশ্রী ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আব্দুস সাত্তারের প্রতীক নৌকা, বিএনপি ঘরানো ও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম চৌধুরী পানু আনারস। কাজলসার ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান জুলকার নাইন লস্কর করনাইনের প্রতীক নৌকা, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ বাহাদুর ঘোড়া, বিএনপি ঘরানো সাবেক চেয়ারম্যান এডভোকেট মোস্তাক আহমদ মোটরসাইকেল, বিএনপি ঘরানো চেরাগ আলী চশমা, আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী আশরাফুল আম্বিয়া আনারস, স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমদাদ হোসেন চৌধুরী টেলিফোন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আল ইমরান হোসেন টেবিল ফ্যান, জমিয়তের প্রার্থী মাওলানা হুমায়ুন কবির লস্কর কয়েছ খেজুরগাছ। খলাছড়া ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী কবির আহমদের প্রতীক নৌকা, স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল হক আনারস, আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী আব্দুল গফুর চশমা, স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম মস্তুফা মাসুক ঘোড়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী জামরুল হক মোটরসাইকেল।

জকিগঞ্জ সদর ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মাওলানা আফতাব আহমদের প্রতীক নৌকা, বিএনপি ঘরানো হাসান আহমদ চশমা, জামায়াত ঘরানো সাবেক চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমদ মোটরসাইকেল, স্বতন্ত্র প্রার্থী শফিকুর রহমান আনারস, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী সালেহ আহমদ হাতপাখা, জমিয়তের দলীয় প্রার্থী জামিল আহমদ আশুক খেজুরগাছ। সুলতানপুর ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ইকবাল আহমদ চৌধুরী একলের প্রতীক নৌকা, আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম আনারস, জাপার প্রার্থী রিমন আহমদ চৌধুরী লাঙল, সাবেক চেয়ারম্যান বুরহান উদ্দিন ঘোড়া, জাপা নেতা জালাল উদ্দিন টেবিল ফ্যান, বিএনপি ঘরানোর হাসান আহমদ চশমা, জাপা নেতা আনোয়ার হোসেন হেলালী মোটরসাইকেল। বারঠাকুরী ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী মহসিন মর্তুজা চৌধুরীর প্রতীক নৌকা, বিএনপি ঘরানোর সাবেক চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন নসির আনারস, বিএনপি ঘরানো আক্তার হোসেন রাজু মোটরসাইকেল, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হাফিজ জিল্লুর রহমান তাপাদার হাতপাখা, স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসান আহমদ খাঁন চশমা।কসকনকপুর ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক রিয়াজের প্রতীক নৌকা, আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন লস্কর আনারস, জাপা প্রার্থী সুলেমান আহমদ লস্কর লাঙল, স্বতন্ত্র প্রার্থী আলী হোসেন চশমা, জাপা নেতা আব্দুস সাত্তার মঈন মোটরসাইকেল। মানিকপুর ইউপিতে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আবু জাফর মো. রায়হানের প্রতীক নৌকা, জাপার দলীয় প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাহতাব হোসেন চৌধুরী লাঙল, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী শিহাব উদ্দিন হাতপাখা, বিএনপি ঘরানোর প্রার্থী জাহাঙ্গীর শাহ চৌধুরী আনারস, স্বতন্ত্র প্রার্থী রশিদ আহমদ ঘোড়া।

তাছাড়াও সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত আসনের সদস্যরা বিভিন্ন প্রতীক পেয়েছেন। প্রতীক পেয়েই প্রার্থীদের সমর্থকরা মাঠে নেমেছেন। পোস্টার লিফলেট নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে গেছে প্রার্থীদের প্রচারণার রেশ।