জকিগঞ্জে সরকারি রাস্তার জায়গা দখল করে বেড়া নির্মাণের পর এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার উচ্ছেদ করেছেন। সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে তিনি জকিগঞ্জ সদর ইউনিয়নের কান্দিগ্রামে গিয়ে সরকারি রাস্তার জায়গা দখলদারদের কবল থেকে উদ্ধার করেন।

জানা গেছে, জকিগঞ্জের বিলেরবন্দ হইতে হাইল ইসলামপুরমূখী সরকারি রাস্তার জায়গা দখল করে রেখেছিলেন উত্তর কান্দিগ্রামের মৃত মুক্তাদির আলীর ছেলে জবরুল হকসহ অন্তত ৫জন। এতে রাস্তার প্রসস্ত ছোট হয়ে যায়। যানবাহনসহ লোকজন চলাচলে প্রতিবন্ধিকতা সৃষ্টি হয়। রাস্তা সংস্কারের কাজও আটকে ছিলো।

এ নিয়ে সোমবার সকালে জকিগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন হাইল ইসলামপুর গ্রামের মৃত মোশাহিদ আলীর ছেলে আবুল কালাম।

পরে থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে সরকারি জায়গা থেকে দখলদারদেরকে বেড়া সরিয়ে নিতে অনুরোধ জানায়। কিন্তু দখলদাররা পুলিশের কথায় পাত্তা না দেয়ায় পরে থানা পুলিশ বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কমকর্তা সুমী আক্তারকে জানায়।

খবর পেয়ে নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) পল্লব হোম দাস সরেজমিন গিয়ে সরকারি রাস্তার জায়গা দখলদারদের কবল থেকে উদ্ধার করেন। এবং সরকারি রাস্তার জায়গা ভবিষ্যতে দখলের চেষ্টা করলে আইনী ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান, ইউপি সদস্য আজিজুর রহমান, মুরব্বি মুহি উদ্দিনসহ এলাকার লোকজন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী আক্তার জানান, সরকারি রাস্তার জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে। রাস্তা সংস্কার করা হবে। আগে থেকেই তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ ছিলো যে, কয়েকজন রাস্তার জায়গা দখল করে রেখেছেন। এতে রাস্তা সংস্কার করা সম্ভব হচ্ছেনা। সোমবার গিয়ে তাদেরকে বুঝিয়ে রাস্তার জায়গা ছেড়ে দিতে বলি। পরে তারাও ছেড়ে দেয়।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিনের রোগমুক্তি কামনায় বিয়ানীবাজার উপজেলা আ.লীগের দোয়া মাহফিল