জকিগঞ্জ উপজেলায় দেশের ২৮ তম গ্যাসক্ষেত্রের উন্নয়ন কাজে সন্তোষ প্রকাশ করে এই গ্যাসক্ষেত্রকে একটি পূর্ণ গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রে পরিণত করার দাবি জানিয়েছে লন্ডনে জকিগঞ্জ উপজেলা বাসির সংগঠন জকিগঞ্জ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন। একই সাথে জকিগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে মাদকের চোরাচালান বন্ধে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

মঙ্গলবার (২২ জুন) সন্ধ্যায় পূর্ব লন্ডনের একটি রেস্টুরেন্টে সংগঠন আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করে বক্তারা বলেন, অতীতের ন্যায় কোন অজুহাতে দীর্ঘ সূত্রিতা বা যাতে বন্ধ না হয়ে যায় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। পাশাপাশি স্থানীয়দের চাহিদা মিটানো ও স্থানীয় লোকদের কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি ক্রয়ডন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলার শেরোয়ান চৌধুরী। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন।

লিখিত বক্তব্যে জকিগঞ্জে গ্যাসক্ষেত্র উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করেন। তাছাড়া নেতৃবৃন্দ জকিগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে ইয়াবা ও অন্যান্য নেশা জাতীয় সামগ্রী প্রবেশে উদ্বেগ প্রকাশ করে অনতিবিলম্বে তা বন্ধে পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি জোর দাবি জানান।

সম্মেলনে স্বাধীনতা যুদ্ধে সিলেটের জকিগঞ্জকে প্রথম পাক হানার মুক্ত অঞ্চল দাবি করে বলা হয় ১৯৭১ সালের ২১ নভেম্বর পবিত্র ইদুল ফিতরের দিন মুক্তিযুদ্ধের উত্তর পূর্ব জোনের বেসামরিক উপদেষ্টা দেওয়ান ফরিদ গাজি এমএলএ, আব্দুল লতিফ এমএলএ, আব্দুর রহিম এমএলএ এবং ৪নং সেক্টর কমান্ডার সি আর দত্তসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে জকিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিক ভাবে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করা হয়। নেতৃবৃন্দ জকিগঞ্জকে প্রথম পাক হানাদার মুক্ত অঞ্চল ঘোষণা করে সিলেট বাসির অর্জনকে সরকারি স্বীকৃতি প্রদানের জোর দাবি জানান।

সম্মেলনে সংগঠনের পক্ষে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এসোসিয়েশনের ট্রেজারার গোলাম মর্তুজা চৌধুরী ইকবাল, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, জকিগঞ্জ উপজেলা এডুকেশন ট্রাস্টের জেনারেল সেক্রেটারি ও সিলেট ভয়েসের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ফজলে আহমদ চৌধুরী একলিম, এডুকেশন সেক্রেটারি কাজি খালেদ আহমদ ও এসিস্ট্যান্ট রিলিজিয়াস সেক্রেটারি কাজি মাওলানা এমদাদুল হক।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

বিনা খরচে পড়ালেখা করার সুযোগ রয়েছে বিয়ানীবাজারের যে স্কুলে