সারাদেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে সিলেটের গোলাগঞ্জের সপ্তাহব্যাপী বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে পেশাদার ও তালিকাভুক্ত ৫ মাদক ব্যবসায়ী ও ২ মাদকসেবী। গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে প্রায় সাড়ে ৫শত পিছ ইয়াবা (অ্যামফিটামিনি) ট্যাবলেট ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়। এসব অভিযানে নেতৃত্ব দেন গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (প্রশাসন) এ. কে. এম ফজলুল হক শিবলী ও অফিসার ইনচার্জ (অপারেশন) মোঃ দেলোওয়ার হোসেন । গত ২০ মে থেকে শুরু হওয়া অভিযানে গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলো- উপজেলার পৌরসভার সরস্বতি নিজগঞ্জ গ্রামের মস্তকিন আলীর পুত্র মল্লিক মিয়া (৫২), ভাদেশ্বর দক্ষিণ ভাগ গ্রামের আতাইর রহমানের ছেলে চুনু মিয়া (৪০), রনকেলী গ্রামের মৃত মারুফ আলীর ছেলে রাবেল আহমদ ওরফে পিচ্চী রাবেল (২৫), জকিগঞ্জ উপজেলার কাদিপুর গ্রামের মৃত সুরফান উদ্দিনের ছেলে মো: বাহার উদ্দিন(৩০) ও একই উপজেলার পিয়াইপুর গ্রামের মৃত সিরাজুল হকের ছেলে সাহাব উদ্দিন (৪৫)। মাধকসেবনের অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- উপজেলার উত্তর ঘোষগাও গ্রামের সুরমান আলীর ছেলে দুদু মিয়া (৩০) ও হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং থানার বানিয়াচং গ্রামের মমিন উল্লাহর ছেলে মোশাইদ উল্লাহ (৩২)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২০ মে মাধকব্যবসায়ী মল্লিক মিয়ার (৫২) কাছ থেকে আনুমানিক ১৩ হাজার টাকা মুল্যের ৬৫পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ বিক্রয় লব্দ প্রায় আড়াই হাজার টাকা জব্দ করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে (নং ১২ তারিখ ২০ মে ২০১৮)। এছাড়া মল্লিকের বিরুদ্ধে একই আইনে গোলাপগঞ্জ থানায় আরো ৭টি ও বিয়ানীবাজার থানায় ১টি মামলা রয়েছে। ২৩ মে আনুমানিক ২১হাজর টাকা মুল্যের ১০৬ পিছ ইয়াবা ও বিক্রয়লব্দ প্রায় সাড়ে৭শত টাকা সহ চুনু মিয়া (৪০)কে গ্রেফতার করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে (নং ১৫ তারিখ ২৩ মে ২০১৮)। তার বিরুদ্ধে গোলাপগঞ্জ থানায় একই আইনে আরেকটি মামলা রয়েছে। একই দিন আনুমানিক ৪হাজার টাকা মুল্যের ২০পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ রাবেল আহমদ ওরফে পিচ্চী রাবেল (২৫) কে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে মামলা নং ১৬। এছাড়া রাবেলের বিরুদ্ধে জকিগঞ্জ ও গোলাপগঞ্জ থানায় আরো দুটি মামলা রয়েছে। একই তারিখে প্রায় ১লাখ ৫হাজার টাকা মুল্যের ৩৫০ পিছ ইয়াবা সহ জকিগঞ্জ উপজেলার কাদিপুর গ্রামের মৃত সুরফান উদ্দিনের ছেলে মো: বাহার উদ্দিন(৩০) ও একই উপজেলার পিয়াইপুর গ্রামের মৃত সিরাজুল হকের ছেলে সাহাব উদ্দিন (৪৫) কে গ্রেফতার করা হয়। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে গোলাপগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করে (নং ১৭ তাং ২৩মে২০১৮)। এদিকে গাজা সেবনের অভিযোগে ২৬ মে সন্ধ্যার পর দুদু মিয়া (৩০) ও মোশাইদ উল্লাহ (৩২) কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ওসি (প্রশাসন) এ.কে.এম ফজলুল হক শিবলী জানান, সারাদেশে চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে উপজেলার চিহ্নিত ও পেশাদার মাদক ব্যবসায়ীদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের পৃথক পৃথক মামলায় আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও মাদকসেবী দুজনকে আগামীকাল (২৭মে) ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বিচার শেষে জেল হাজতে পাঠানো হবে। মাদক নির্মুলে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।