গোলাপগঞ্জের সুন্দিশাইলে ২৩ শহীদ স্মৃতি সংসদ আয়োজিত ৬ষ্ঠ প্রাথমিক মেধা বৃত্তি পরীক্ষা সম্পন্ন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও উপজেলার ৩৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ২শত শিক্ষার্থীর অংশ গ্রহনে ৫টি বিষয়ের উপর মেধা বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

সুন্দিশাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত মেধা বৃত্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হল পরিদর্শন করেন গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব, সিলেট জেলা পরিষদদের মহিলা সদস্যা হাছিনা বেগম, গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার এনচার্জ একেএম ফজলুল হক শিবলী, লন্ডন মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সুহেল আহমদ শাহেল, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার লুৎফুর রহমান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা রুপা পাল, ইউপি সদস্য কামরান আহমদ, আমনিয়া-১ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শাহনাজ বেগম শেলী, সাংবাদিক মো. চেরাগ আলী, আমুড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ফরহাদ আহমদ। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের দায়িত্ব পালন করেন ব্যাংক অফিসার শাহেদ আহমদ, সহকারী নিয়ন্ত্রক ছিলেন ছাইম উদ্দিন। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ২৩ শহীদ স্মৃতি সংসদের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আহমদ লিটন, প্রচার সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সদস্য জিয়াউল ইসলাম জাবেদ, ফাহাদ আহমদ তপু, রাহিন আহমদ, মাহফুজ আহমদ, সাব্বির আহমদ, আতাউর রহমান, আনোয়ার হোসেন, মাসুদ আহমদ, অলিউর রহমান, লিটন আহমদ, কামিল আহমদ, শরফ উদ্দিন, সৈয়দ জাকির হোসেন, সাইদণজ্জামান রাজন, মিনহাজ নাদিল। মেধা বৃত্তি পরীক্ষায় পৃষ্ঠপোষকতা করেন গোলাপগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও শিক্ষানুরাগী ফখরুল ইসলাম। ২৩ শহীদ স্মৃতি সংসদ ও সুন্দিশাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি এমএ ওয়াদুদ এমরুল অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগীতার জন্য অতিথি, শিক্ষক ও সংসদের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্য, মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে আমুড়া ইউনিয়নের সুন্দিশাইল গ্রামে হানাদার বাহিনীর হাতে নির্মম ভাবে নিহত শহীদের নিয়ে গঠিত ২৩শহীদ স্মৃতি সংসদ। এ সংগঠন প্রতি বছর বিভিন্ন উন্নয়ন ও শিক্ষামলূক কর্মকান্ডের আয়োজন করে থাকে।