সিলেট জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ইফতেখার আহমদ দিনারের সন্ধান গত ৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে পাননি পরিবার।  নিখোঁজ থাকা ছাত্রদল নেতার সন্ধান দাবিতে পরিবার দিশেহারা। তার সন্ধান দাবিতে দলের নেতাকর্মীরা ব্যস্ত আন্দোলন সংগ্রামে-  ঠিক এমন মুহূর্তে সন্ধান মিললো দিনারের ভূয়া খালাতো ভাইয়ের। তিনি আবার জেলা ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে যুক্ত। ভূয়া স্বজন সেজে খালেদা জিয়া পর্যন্ত পৌছে গেছেন এ ছাত্রদল নেতা।

এডভোকেট সালেহ আহমদ চৌধুরী নামের ওই ব্যক্তিটি প্রতারণার মাধ্যমে দিনারের নকল খালাতো ভাই সেজে খালেদা জিয়ার ইফতার মাহিফিলে যোগ দেন। এঘটনায় হতবাক সিলেট বিভাগের সর্বস্তরের ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। অাক্ষেপ করেছেন দিনারের প্রকৃত স্বজনরা। তারা বলছেন- ‘শেষমেষ দিনারের পরিবারের জন্য বরাদ্দ শান্তনাটুকুও গুম হয়ে গেল!’

অভিযোগ রয়েছে জেলা ছাত্রদলের শীর্ষস্থানীয় এক নেতার আশির্বাদে অতীতে শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকা সালেহ চৌধুরী ছাত্রদলের পদ সহজেই পেয়ে গেছেন।

দেশব্যাপী বিএনপির বিগত দিনের আন্দোলন সংগ্রামে নিহত ও নিখোঁজের স্বজনদের সম্মানে রাজধানীতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজন করে ইফতার ও দোয়া মাহফিল। সেখানে সারাদেশ থেকে নিখোঁজ ও নিহতদের আত্মীয়-স্বজনরা যোগ দেন। ওই অায়োজনে দলটির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন। স্বজনদের হাতে তুলে দেওয়া হয় উপহার সামগ্রীও।

এ ইফতার মাহফিলে নিখোঁজ বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস অালীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা যোগ দেন। নিখোঁজ অপর ছাত্রদল নেতা ইফতেখার আহমদ দিনারের পক্ষে যোগ দেন এডভোকেট সালেহ আহমেদ চৌধুরী। তিনি নিজেকে দিনারের খালাতো ভাই দাবি করে প্রতিবারই কেন্দ্রের দেয়া নানারকম সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে আসছিলেন।

এবার তিনি তাহসিনা রুশদীর লুনার হাতে ধরা পড়লেন। তাৎক্ষণিক লুনা জালিয়াতি ধরে বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অবহিত করেন। জানাগেছে এই ‘প্রতারকের’ বিরুদ্ধে সাংগঠনিক এবং আইনীভাবে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দিনারের নকল খালাতো ভাই সেজে ফাঁয়দা ভোগকারি সালেহ চৌধুরীর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইফতার মাহফিলের কয়েকটি ছবি শোভা পাচ্ছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে তিনি খালেদা জিয়ার একেবারে পিছনে দাড়িয়ে রয়েছেন। অন্য ছবিতে দেখা যাচ্ছে খালেদা জিয়ার সামনে থাকা ফুলের তোড়াতে নিজে হাত রেখে সেল্ফি তুলছেন। ছবিগুলো নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল সমালোচনা চলছে। ছাত্রদল নেতারা তার অাজীবন বহিষ্কার দাবি করে শাস্তির দাবি করছেন।

এ ব্যাপারে নিখোঁজ ইফতেখার আহমদ দিনারের বোন জেলা বিএনপি নেত্রী ও জাতীয়বাদী মহিলা দলের জেলা শাখার সহ-সভাপতি তাহসিন শারমীন তামান্না  বলেন- ‘ধিক্কার জানানোর কোন ভাষা নেই। মানুষ কতো নিচু হলে এমন কলঙ্কের জন্ম দিতে পারে, চিন্তা করেন। আমি এই প্রতারকের শাস্তি দাবি করছি। আর ওদেরও শাস্তি দাবি করছি যাদের মাধ্যমে সে এই জালিয়াতি করেছে। লুনা ভাবি যদি বিষয়টি না ধরতেন তবে সে আগামীতেও এমনটি করে যাবে।’

পাশাপাশি তামান্না এরকম প্রতারকদের হাত থেকে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে রক্ষার জন্য সকলকে সতর্ক থাকার অনুরোধ করেছেন।

কৃতজ্ঞতা- সিলেট ভিউ ২৪।