শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত একটি বিশেষ গুষ্টি শহীদের রক্তে গড়া এদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। পাক দোসররা দেশে ও দেশের বাইরে অবস্থান করে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে এজাতির উন্নয়ন অগ্রযাত্রা রুখতে চায়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মী থাকতে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে কেউ টিকে থাকতে পারবে না। যারা জাতির জনককে হত্যা করেছে তারাই জননেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। আধুনিক বাংলার নির্মাতা শেখ হাসিনাকে দেশের ষোল কোটি মানুষ প্রাণ দিয়ে আগলে রাখবেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়, সাধারণ মানুষের ভাগ্যে পরিবর্তন ঘটে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ব দেখেছে পদ্মার বুকে কিভাবে সেতু নির্মাণ হচ্ছে। নিজস্ব অর্থে সেতু নির্মাণের ঘোষণা দেয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে নিন্দুকেরা হাসাহাসি করেছে। আজ তারাই প্রশংসা করছে। বিগত বন্যায় দেশের সবচেয়ে বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার বলিষ্ট নেত্রীত্বের কারণে দ্রুত সময়ের মধ্যে বন্যার্তদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রি পৌছে দেয়া হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রে উঠেই মানুষ সবধরনের খাদ্য সহায়তা পেয়েছে। এটা এ সরকারের অনেকগুলো সাফল্যের একটি।

আজ শুক্রবার বিকালে কুড়ার বাজার ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মী সভায়
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল কাইউয়েমর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদ খালেদ আহমদের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল হাসিব মনিয়া, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, পৌর মেয়র আব্দুস শুকুর, সহ সভাপতি আব্দুল আহাদ কলা, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন বাবুল, গবেষণা ও বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক ছালেহ আহমদ বাবুল, প্রচার সম্পাদক হারুনুর রশিদ দিপু, বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি ও আওয়ামীলীগ নেতা হোসেন আহমদ, কুড়ার বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ দপ্তর বিষয়ক সম্পাদক মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য এড. আব্বাছ উদ্দীন প্রমুখ।