টানা ভারি বর্ষণ ও গত সোমবার থেকে ভারতের উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল অব্যাহত থাকায় সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার নিন্মাঞ্চল ও বিস্তৃর্ণ এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। মঙ্গলবার কানাইঘাট সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৮০ সে. মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

পাহাড়ী ঢল ও ভারি বর্ষণে কানাইঘাট পৌর শহরের গলিতে বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে। লোভা ও সুরমা নদীর তীরবর্তী এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার বিস্তৃর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ায় লোকালয়ে ও শত শত বাড়িঘরে পানি ঢুকে পড়েছে। অধিকাংশ গ্রামীন রাস্তা-ঘাট তলিয়ে গেছে। ডুবে গেছে অনেক মৎস্য খামার সহ শত আমন ধানের বীজতলা ও ধানের চারা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তানভীর আহমদ সরকার জানান, বানের পানিতে সম্পূর্ণভাবে ৬ হেক্টর আংশিক ২০ হেক্টর আমন ধানের বীজতলা এবং ১ হেক্টরের উপরে আউশ ধান নিমজ্জিত হয়েছে। কৃষি সেক্টরের ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি তারা সার্বিক ভাবে মনিটরিং করে যাচ্ছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বারিউল করিম খান জানান, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় কানাইঘাট বাজারসহ উপজেলার নিম্নাঞ্চলে বানের পানি ঢুকে পড়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি মনিটরিং করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

দুধ নিয়ে বিপাকে বিয়ানীবাজারের খামারীরা