বিয়ানীবাজারে করোনার সংক্রমণ দিন দিন ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। নতুন করে এ উপজেলায় এক কিশোরীসহ ৫জনের শরীরের করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

নতুন আক্রান্তরা হলেন- পৌরসভার ফতেহপুর গ্রামের কিশোরী কুলসুমা বেগম (১৫), সুপাতলা গ্রামের বাসিন্দা ও পৌরসভার সহকারী কর পরিদর্শক আব্দুল কাইয়ুম (৪৪), নয়াগ্রামের মো. আরশাদ সরকার (৩৪) ও লুৎফুর রহমান (৩৮), মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া মালিগ্রামের জয়নুল ইসলাম (৪২)।

এছাড়াও এদিন রাতে আরও দুজন পুরাতন করোনা রোগীর দ্বিতীয় নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তারা দুজন হলেন বিজিবি সদস্য জুগল কুমার ও পৌরসভার কসবা গ্রামের কামাল হোসেন (৪৭)।

এর আগে বৃহস্পতিবার তাদের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বশীলরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, শনিবার তাদের সকলের আইসোলেশন নিশ্চিত করার পাশাপাশি বাসস্থান লকডাউন করা হবে। এছাড়া তাদের সংস্পর্শে আসাদের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে প্রেরণ করা হবে।

এদিকে, নতুন ৫জন নিয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ২১৬জনে। এর মধ্যে মারা গেছেন ৯জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১২০ জন।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-

ঈদের আমেজ নেই বিয়ানীবাজারের কামার পাড়ায়