নিউইয়র্কের বাংলাদেশি কমিউনিটির পরিচিত মুখ, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জেড চৌধুরী জুয়েলের একমাত্র ছেলে জিমামের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন )। ২১ বছর বয়সী জিমাম ২০২ হিলসাইড এভিনিউতে বাস করতেন।

পরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রে জানা যায়, মরদেহ উদ্ধারের সময় আসা মেডিক্যাল টিমের সদস্যরা জিমামের হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুর ইঙ্গিত দিয়েছেন। মৃত জিমাম বাংলাদেশের সিলেটের সদর থানার বাসিন্দা।

জানা যায়, বাবা জেড চৌধুরী, মা লুবানা চৌধুরী ও দুই বোনের সঙ্গে জিমাম বাংলাদেশে বেড়াতে যায়। গত সোমবার তাদের রেখে একাই নিউইয়র্কে চলে আসে জিমাম। ২৯ জানুয়ারি রাতেও তার বন্ধুদের সঙ্গে নিজ বাসায় আড্ডা দেয় জিমাম। বাবা মা দেশে থাকায় আত্মীয়-স্বজনের অনেকেই তার খোঁজ নেন ঘুমাবার আগ পর্যন্ত। পরদিন বাড়ির নীচ তলায় (বেইজমেন্ট) থাকা পারিবারিক ঘনিষ্ঠ একজন মহিলা খাবার নিয়ে ডাকতে গেলে জিমামকে নিশ্চল দেখতে পান। সাথে সাথে তিনি আত্মীয়-স্বজনকে জিমামের অবস্থা জানান। পরবর্তীতে জিমামের আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুরা তাকে অচেতন অবস্থায় পান ও পুলিশে খবর দেন।পরে মেডিক্যাল টিমের সদস্যরা এসে জিমামকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ রুটিন আইনী প্রক্রিয়ার জন্য তার মরদেহ নিয়ে গেছে।

জিমামের মারা যাওয়ার খবরে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে। এই বয়সী একজন তরণের মৃত্যু কমিউনিটির সবাইকে নাড়া দিয়েছে।

এদিকে দেশে থাকা জিমামের বাবা-মা ও পরিবারের সদস্যদের তার মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে। শোকে বিহ্বল বাবা জেড চৌধুরী আইনী প্রক্রিয়া শেষে ছেলের মরদেহ সিলেটে পাঠানোর অনুরোধ করেছেন। জিমামের আত্মীয় -স্বজন ও কমিউনিটির নেতারা পুরো ব্যাপারটিই দেখভাল করছেন।

পারিবারিক সূত্রটি জানায়, নিউইয়র্কে জানাযা শেষে জিমামের মরদেহ বাংলাদেশের সিলেটে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। সেখানে জানাযা শেষে তার দাফন করা হবে।

এবিটিভির সর্বশেষ প্রতিবেদন-