ব্রাজিলে বসবাসরত প্রবাসীদের সমন্বয়ে গঠিত ইসলামিক ফোরাম অফ ব্রাজিলের উদ্যোগে ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ব্রাজিলের বাণিজ্যিক রাজধানী সাওপাওলো সিটির স্থানীয় একটি হল রুমে ঈদ পূর্ণমিলনী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ব্রাজিলে ইসলামী আন্দোলনের অন্যতম সংগঠক ও কমিউনিটি নেতা ইঞ্জিনিয়ার জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে এবং বিয়ানীবাজার উপজেলার সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমান ব্রাজিল প্রবাসী কমিউনিটি নেতা জালাল আহমদের পরিচালনায় মোবাইল কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য, বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ও বর্তমান সিলেট মহানগরী জামায়াতের আমির এড: এহসানুল মাহবুব জোবায়ের।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা প্রেসক্লাবের সাবেক সদস্য এবং ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন এর সাবেক সেক্রেটারি বিশিষ্ট সাংবাদিক বর্তমান ব্রাজিল কমিউনিটি নেতা মিরু হোসেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাবেক জামাত নেতা জয়নাল আবেদীন, মো: জামাল আহমদ, নুরূল ইসলাম, মো: মুক্তার হোসাইন, মো: সেলিম আহমদ, সাবেক ছাত্রনেতা তরিকুল ইসলাম, আতিকুর রহমান, কামিল আহমদ, ইকবাল আহমদ, রাসেল আহমদ, আবু সুফিয়ান, শাহিন আহমদ।

এসময় উপস্তিত ছিলেন সদস্য সামাদ আহমদ, এনামুল হক,মাহবুব হেসাইন, শাহিন আহমদ, হাসান আহমদ, কয়েছ আহমদ, কাওছার হোসাইন, রাসেল আহমদ,আব্দুল কালাম, আব্দুর রাজ্জাক, কামরূল ইসলাম, রিয়াদ উদ্দিন আহমেদ, নাদিম মোল্লা প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে বক্তাগন মায়ানমার বার্মায় নির্যাতিত মুসলমানদের কষ্টের করুন পরিস্থিতি তুলে ধরে এর জন্য নোবেল প্রাপ্ত অং সাং সুচিকে দায়ী করেন। সুচির নোবেল পুরস্কার ফেরত নেওয়ার জন্য নোবেল কমিটিকেও আহবান জানান তারা।

সেই সাথে বাংলাদেশের সরকারকে বাংলাদেশ বার্মা সীমান্তে আটকে পরা কয়েক লাখ রোহিঙ্গা কে আশ্রয় দিয়ে চিকিৎসা ও খাদ্য সেবা দেওয়ার আহবান জানান।

এসময় বাংলাদেশ সরকারের বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের রাজনৈতিক নিপিরন বন্ধের আহবান জানান।

প্রধান অতিথি বক্তব্যে এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জোবায়ের বলেন, প্রবাসীরা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রেমিটেন্স পাঠিয়ে ব্যাপক অবদান পালন করছেন। সেই সাথে প্রবাসে আরও শক্তিশালী কমিউনিটি গড়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইশ্যুতে আরও বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার জন্য অনুরোধ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে ইঞ্জিনিয়ার জিয়াউর রহমান ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী ভাবধারার সকল প্রবাসীদেরকে এক প্লাটফর্মে তথা ইসলামীক ফোরাম অব ব্রাজিলের অধীনে সংঘবদ্ধ হয়ে কোরআন হাদিসের আলোকে ব্যাক্তি জীবন, পারিবারিক জীবন এবং রাষ্ট্রীয় জীবন তথা সামগ্রিক জীবনে ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠা করার ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন।
সেই সাথে বাংলাদেশ ও বার্মা সীমান্তে আটকে পরা নির্যাতিত অসহায় রোহিঙ্গাদের পাশে দারিয়ে মানবিক সাহায্যের জন্য দেশ ও জাতীকে অনুরোধ জানান। এবং আরাকানে রোহিঙ্গা মুসলিম নির্যাতন বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকা আশা করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে রোহিঙ্গাদের জন্য, পাশা পাশি দেশ ও জাতির কল্যান কামনা করে দোয়া করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ইঞ্জিনিয়ার জিয়াউর রহমান।