গত কয়েক দিন আগে বিয়ানীবাজার উপজেলার মোল্লাপুর ইউনিয়নের পাতন গ্রামের মসজিদে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের রেশ কাটতে না কাটাতে আবারও মসজিদে সংঘর্ষের ঘটনায় দুই জন আহত হয়েছেন। উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের চারাবই দাউদপুর গ্রামে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

চারাবই দাউদপুর গ্রামের পূব শত্রুতার জের ধরে বুরহান উদ্দিনের পুত্র এমরান আহমদ (২২)  নামের যুবক ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় একই গ্রামের যুবক শিব্বির আহমদ  ও আতিকুর রহমানের উপর। এতে তারা মারাত্মক ভাবে আহত হলে বিয়ানীবাজার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তারাবির নামাজের পর এমরান উৎপেতে বসে থাকে। নামাজ শেষে শিব্বির ও আতিকুর বাড়ি ফিরার পথে তাদের উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়  এমরান। এতে তারা বাচাঁর জন্য গ্রামের মসজিদে গিয়ে আশ্রয় নিলে এমরান মসজিদের ভিতরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মুসল্লিদের সামনে তাদের আঘাত করে পালিয়ে যায়।

বুধবার সকালে শিব্বির আহমদের পিতা জলিল উদ্দিন বিয়ানীবাজর থানায়  এসে মামলা দায়ের করেন।