দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফশীল এখনো ঘোষণা হয়নি। সরকার দল আওয়ামী লীগ এককভাবে নির্বাচন করবে না জোটগত নির্বাচন করবে সেটি নির্ভর করবে নির্বাচনে বিএনপি জোটের অংশ গ্রহণের উপর। এর মধ্যে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ৩শ’ আসনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে। সে তালিকায় সিলেট-০৬ আসন বিয়ানীবাজার গোলাপগঞ্জে নাম রয়েছে কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরোয়ার হোসেনের!

গতকাল মঙ্গলবার ১২ সেপ্টেম্বর রাত থেকে একটি তথাকথিত অনলাইন পত্রিকার সংবাদ ফেসবুকে ভাইরাল হয়। অনেকে শেয়ার ও স্কিটশট দিয়ে কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরোয়ার হোসেনকে অভিনন্দন জানান। অথচ আজ ১৩ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে খোদ সরোয়ার হোসেন জানালেন এসব সংবাদ ভূয়া।

আওয়ামী লীগের রাজনীতিযুক্ত এমন কয়েকজন দায়িত্বশীলদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, আওয়ামী লীগের একটি মনোনয়ন বোর্ড রয়েছে। সে বোর্ডের সভাপতি দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্বাদশ নির্বাচনকে সামনে রেখে এখন পর্যন্ত মনোনয়ন বোর্ডের সভা বসেনি। মনোনয়ন বোর্ড এর সভা ছাড়া আসন ভিত্তিক প্রার্থী তালিকা হওয়ার কথা না কিংবা সুযোগ নেই। দলের নেত্রী মনোনয়ন বোর্ডের সভার মাধ্যমে নির্বাচনে জন্য দলীয় প্রার্থী নির্ধারণ করবেন। আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলরা এসব ভূয়া সংবাদ ছড়িয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানান।

এদিকে ‘ভূয়া সংবাদ’ উল্লেখ করে কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরোয়ার হোসেনের স্ট্যাটাস দেয়ায় আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল তাঁর প্রশংসা করেছেন। এ প্রতিবেদকের সাথে আলোচনা করে তারা বলেন, ভূয়া সংবাদ দলকে বিভ্রান্ত করবে। সভানেত্রী বঙ্গবন্ধুর তনয়া শেখ হাসিনা যাদের উপর আস্থা রাখবেন, যাদেরকে মনোনয়ন দেবেন দলের নেতাকর্মী তার পক্ষে সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করবে। সরোয়ার হোসেনের এ স্ট্যাটান থেকে অন্যদেরও শিক্ষা নেয়া উচিত বলে তারা মন্তব্য করেন।

বিজ্ঞাপন