২৬শে জুন, ২০১৯ ইং | ১২ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মেসি ম্যাজিকে শেষ চারে বার্সা- রোনালদো’র জুভেন্তাসের বিদায়

https://i1.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/04/bar.jpg?resize=1200%2C630

এ গ্রহের দুই ফুটবল জাদুকরের জন্য গত রাতটি ছিল ভিন্ন ধরনের। একজন হাসিমুখে মাঠ ছাড়লেও অন্যজনের বিদায় বেদনাবিধুর। যার কারণে চ্যাম্পিয়ন লীগে মেসি-রোনালদো দ্বৈরত্ব দেখা থেকে বঞ্চিত হলো ফুটবল বিশ্ব। রোনালদোর ক্লাব জুভেন্তাস কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদািয় নিলে এ দুই ফুটবল জাদুকরের দ্বৈরত্ব দেখা থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে বিশ্বের কোটি কোটি ভক্ত-সমর্থকদের।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তারকায় মোড়া জুভেন্টাসকে কোয়ার্টার ফাইনালে বিদায় করে ১৯৯৭ সালের পর প্রথমবার সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো আয়াক্স আমস্টারডাম।

অপর খেলায় মেসির জোড়া ও কুতিনহোর একমাত্র গোলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে বার্সা। দুই লেগ মিলিয়ে মেসিরা ৪-০ গোলে পগবার মেনচেস্টার ইউনাইটেডকে হারায়।

জুভেন্টাসের মাঠে শেষ আটের দ্বিতীয় লেগে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় তুলে আয়াক্স। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-২ ব্যাবধানের জয় পায় এরেদিভিসের শিষ্যরা। এর আগে প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছিল হল্যান্ডের নামকরা দলটি।

এই আয়াক্সের কাছে শেষ ষোলোতে হেরে এর আগে আসর থেকে বিদায় নিয়েছিল গত তিনবারের রেকর্ড চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। এদিন গোলের শুরুটা অবশ্য জুভেন্টাসই করে। দলের তারকা স্ট্রাইকার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ম্যাচের ২৮ মিনিটে তুরিনের ওল্ড লেডিদের লিড পাইয়ে দেন। হেডের মাধ্যমে গোলটি করেন এই পর্তুগিজ। ম্যাচে ফিরতে বেশি দেরি করেনি আয়াক্স।৩৪ মিনিটে ডনি ফন ডি বিকের গোলে সমতা পায় ডাচ লিজেন্ডসরা। হাকিম জিয়েচির সহায়তা গোলটি করেন তিনি।

বিরতির পর আক্রমণের ধার আরও বাড়ায় আয়াক্স। ফলে ৬৭ মিনিটে এগিয়েও যায় দলটি। ম্যাথিস ডি লিট হেডের মাধ্যমে গোলটি করেন। আর এই গোলে গুরুত্বপূর্ণ জয়টি নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারে আয়াক্স।

নূক্যাম্পে মেসিময় ছিল শেষ আটের দ্বিতীয় লেগ। মেসির ঝলকে শেষ চার নিশ্চিত করেছে বার্সা। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিজে করলেন জোড়া গোল এবং অ্যাসিস্ট করলেন ফিলিপ কুতিনহোর গোলে। খুদে জাদুকরের নৈপুণ্যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে উঠলো বার্সেলোনা।

ঠিক ২০ বছর আগে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ইউরোপ সেরা হওয়ার পথে ম্যান ইউয়ের হয়ে জয়সূচক গোলটি এসেছিল ওলে গানার সোল্কজায়েরের পা থেকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের সঙ্গে সঙ্গে ওই মৌসুমে ত্রিমুকুট জিতেছিল রেড ডেভিলসরা। বিশ বছর বাদে ক্লাবের কোচ হয়ে এসে যদিও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের বেশ কিছুটা দূরেই থমকে যেতে হল সোল্কজায়েরকে। সৌজন্যে ফিলিপ কুটিনহোর একমাত্র ও মেসির জোড়া গোল।

ঘরের মাঠে প্রথম লেগে এক গোলে পিছিয়ে থাকা ম্যান ইউ নু-ক্যাম্পে ০-৩ গোলে বিধ্বস্ত হল। এগ্রিগেটে ০-৪ ব্যবধানে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিশ্চিত হল তিনবারের ইউরোপ সেরাদের। প্রথমার্ধে মধ্যমনি মেসির জোড়া গোলেই ২০১৪-১৫ পর কোয়ার্টারের গন্ডি পার হতে পারা কার্যত নিশ্চিত হয়ে যায় কাতালান ক্লাবের। দ্বিতীয়ার্ধে গোল করে বার্সার সেমিতে যোগ্যতা অর্জনে শিলমোহর দেন কুটিনহো।

যদিও এদিন ম্যাচের প্রথম মিনিটে ম্যান ইউ স্ট্রাইকার মার্কাস র‍্যাশফোর্ডের শট বার কাঁপিয়ে চলে যায়। এরপর বার্সার বিরুদ্ধে একটি পেনাল্টির নির্দেশ দিয়েও ভিএআরের সাহায্য নিয়ে তা বাতিল করেন রেফারি। ১৬ মিনিটে একক দক্ষতায় গোল করে বার্সাকে ম্যাচে প্রথমবারের জন্য এগিয়ে দেন মেসি। ২৪ মিনিটে দি গিয়াকে পরাস্ত করে ইংলিশ ক্লাবটির বিরুদ্ধে নিজের ২৪ তম গোলটি তুলে নেন আর্জেন্তাইন সুপারস্টার। ওখানেই কার্যত নিশ্চিত হয়ে যায় বার্সার শেষ চার।

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচ আরও দখলে নিয়ে নেয় পাঁচবারের ইউরোপ সেরা বার্সেলোনা। ৬৪ মিনিটে বক্সের টপ কর্ণার থেকে দুরন্ত গোলে ম্যাচে প্রতিপক্ষের ফিরে আসার সমস্ত পথ বন্ধ করে দেন ব্রাজিল তারকা কুটিনহো। এরপর ম্যাচের বাকি সময়টা আর কোনও পক্ষ গোল করতে না পারায় ৩-০ গোলে জয় নিশ্চিত হয় বার্সার। একইসঙ্গে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-০ ব্যবধানে জিতে ২০১৪-১৫ মৌসুম পর ফের ইউরোপ সেরার টুর্নামেন্টে শেষ চার নিশ্চিত করল কাতালান ক্লাব।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বড়লেখায় সৌদির রিয়ালের পরিবর্তে কাগজে মোড়ানো ভিম বার, আটক ১

কানাডা আ.লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেনের মায়ের সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মিলাদ

বিয়ানীবাজার পৌরসভা পরিদর্শন করলেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক

দৈনিক 'একাত্তরের কথা’র বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি শহিদুল ইসলাম সাজু

বিয়ানীবাজারে ফুটবলার লিওনেল মেসির জন্মদিন উদযাপন

গোলাপগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় টেম্পু চালক নিহত, আহত ১

ঘোষণাঃ