২১শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ৭ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

মনসুর-মোকাব্বিরকে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা

https://i1.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/03/monsur-mukabbir.jpg?resize=1200%2C630

শপথের সিদ্ধান্ত নিলে বহিস্কার করা হবে, গণফোরাম থেকে এমনটি আগেই বলা হয়েছিলো। তবু শপথ নেওয়ার ব্যাপারে অনড় ঐক্যফ্রন্টের দুই সাংসদ সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খান। ৭ মার্চ শপথ নিতে আগ্রহের কথা জানিয়ে শনিবার স্পিকারকে চিঠি দিয়েছেন মৌলভীবাজার-২ ও সিলেট-২ আসনের এই দুই সাংসদ।

দলের দুই সাংসদের এমন সিদ্ধান্তে স্বভাবতই ক্ষুব্দ গণফোরাম নেতারা। দুই সাংসদের শপথের আগ্রহের কথা জানিয়ে স্পিকারকে চিঠি প্রদানের সংবাদে মতিঝিলের ইডেনে দলীয় নেতাকর্মীরা শনিবার থেকেই ওই দুজন সংসদ সদস্যকে গণফোরাম কার্যালয়ে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন।

এ ব্যাপারে গণফোরামের কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক বলেন, বিভিন্ন অনলাইন ও পত্রিকায় জানতে পারলাম আমাদের দলের টিকিটে নির্বাচিত দুই সংসদ সদস্য সুলতান মো. মনসুর ও মোকাব্বির খান দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেয়ার জন্য স্পিকারের কাছে চিঠি দিয়েছেন। এর প্রেক্ষিতে আমরা দলীয়ভাবে তাদেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছি।

তিনি জানান, অবাঞ্ছিত ঘোষণাকালে দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন যুব গণফোরামের আহবায়ক কাজী হাবিব, গণফোরামের যুব সম্পাদক রওশন ইয়াজদানি, সাংস্কৃতিক সম্পাদক খান সিদ্দিক, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার রফিকুল ইসলাম, ঐক্যবদ্ধ ছাত্র সমাজের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ মধু প্রমুখ।

এ ব্যাপারে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু বলেন, ‘তারা শপথ নেয়ার জন্য কবে চিঠি দিয়েছেন, তা আমি জানি না। দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তো আমার জানা উচিত। আমাদের এরকম কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি যে তারা এককভাবে শপথ নেবেন। আমরা যেটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, শপথ নিতে চিঠি দিতে হলে ঐক্যফ্রন্টের সবাই একসঙ্গে দেবো এবং একসঙ্গে যাবো আন্দোলনের অংশ হিসেবে।

মন্টু আরও বলেন, এখন কেউ যদি নিজে থেকে শপথ নেয়ার জন্য চিঠি দেন, তাহলে আমাদের সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

প্রসঙ্গত: নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে বিএনপির নির্বাচনী প্রতীক ‘ধানের শীষ’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শার্ষ নেতারা। এ সিদ্ধান্তের আলোকে সারাদেশে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেন ২৯৯জন সংসদ সদস্য প্রার্থী। এর মধ্যে বিগত ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সারাদেশ থেকে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত হয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ মোট ৬ জন। আর ড. কামাল হোসেনের গণফোরামের ‘উদীয়মান সূর্য’ প্রতীকে নির্বাচিত হন সিলেট-২ আসন থেকে মুকাব্বির খান।

কিন্তু নির্বাচনে ‘ভোট ডাকাতি ও ভোটের নামে প্রহসনের অভিযোগ’ এনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে। নির্বাচিত কেউ শপথ না নেয়ারও ঘোষণা দেয়।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

প্রতিদ্বন্দ্বি খছরুল হক’র বাড়িতে ভাইস চেয়ারম্যান জামাল

গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

বিলপার প্রিমিয়ার লিগের ৫ম আসরের ফাইনাল আগামীকাল বৃহস্পতিবার

বিয়ানীবাজার-বহরগ্রাম সড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটি, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন স্থানীয়রা

বিয়ানীবাজারের কুশিয়ারা নদীতে জেলেদের জালে বিশাল বাঘ আইড়

বড়লেখায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৭৫ ভোটে জয়ী তাজ

ঘোষণাঃ