২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং | ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গ্যাস সংযোগের প্রতীক্ষায় গোলাপগঞ্জবাসী

https://i2.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/02/GOLAPGONG.jpg?resize=1200%2C630

গোলাপগঞ্জে ১৯৬১ সালে আবিস্কৃত হয় দেশের অন্যতম কৈলাশটিলা গ্যাসফিল্ড। বর্তমানে কৈলাশটিলার সাতটি কূপ থেকে দৈনিক প্রায় ৬৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন হয়। যার মাত্র তিন ভাগ ব্যবহার করতে পারছেন উৎসস্থল গোলাপগঞ্জবাসী। আর ৯৭ ভাগই চলে যায় পাইপলাইনের মাধ্যমে সারাদেশে। এদিকে প্রবাসী অধ্যুষিত এ উপজেলায় দৃষ্টিনন্দন বাড়ি তৈরি করে গ্যাস সংযোগ না পাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এলাকাবাসী। এতে বাড়িগুলো নিজেরা যেমন ব্যবহার করতে পারছেন না, তেমনি পারছেন না ভাড়া দিতেও। এর আগে ঘরে ঘরে সংযোগ প্রদানের দাবিতে পৌর শহরে মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, গোলাপগঞ্জে গ্যাসের আবাসিক গ্রাহকের সংখ্যা মাত্র ১০ হাজার ৬৬১টি, যা মোট জনসংখ্যার মাত্র ২৪ ভাগ। অথচ ৭৬ ভাগের বেশি মানুষ এখনও গ্যাস সুবিধা পায়নি। ঘরে ঘরে গ্যাস সরবরাহের দাবিতে দফায় দফায় আন্দোলনের কারণে গোলাপগঞ্জে স্থাপিত হয় ফ্রাকশনেশন ও এলপিজি প্লান্ট। বর্তমানে গোলাপগঞ্জে দুটি গ্যাস প্লান্ট, দুটি কনডেনসেট রিফাইনারি, একটি এনজিএল ফ্রাকশনেশন প্লান্ট ও একটি এলপিজি প্লান্ট রয়েছে। ২০১৫ সালের ৩ নভেম্বর থেকে সিলেট অঞ্চলে নতুন গ্যাস সংযোগ বন্ধ করে দেয় জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া ২০১৬ সালের ৩১ মের আগে যাদের গ্যাস সংযোগ রয়েছে, তারা একই রাইজার ব্যবহার করে নতুন বর্ধিত চুলার সংযোগ নিতে পারবেন না, এমন সিদ্ধান্তও কার্যকর করে কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে গ্যাস কর্মকর্তাদের ওপর দিন দিন চাপ বৃদ্ধি ও গ্রাহকদের তোপের মুখে পড়েন ঠিকাদাররাও।

ধারাবহর গ্রামের মোহাম্মদ ছাদিক পরিবার নিয়ে সৌদি আরবে থাকেন। দীর্ঘদিনের আয় দিয়ে তিনি দেশে নকুন বাড়ি তৈরি করেন। ওই বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগসহ সব কাজ সম্পন্ন হলেও গ্যাস সংযোগ না থাকায় বিপাকে পড়েছেন ওই প্রবাসী। আবাসিক গ্যাস সংযোগ বন্ধ করার আগে চাহিদাপত্রের (ডিমান্ডনোট) টাকা জমা দিয়েও সংযোগ পাচ্ছেন না তিনি। নিয়ম অনুযায়ী গ্যাস সংযোগের জন্য সর্বশেষ চাহিদাপত্রের টাকা জমার পর গ্যাসের রাইজার স্থাপন করা হয়। টাকা জমা দেওয়ার পরও সংযোগ না পেয়ে তার মতো ক্ষোভ রয়েছে অনেকের। তবে তাদের অপেক্ষার শেষ কোথায় কেউ জানে না।

পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ইকবাল আহমদ জানান, তিনি যাবতীয় ফি পরিশোধ করার পর পরই ঘোষণা হয় আবাসিক খাতে গ্যাস সংযোগ দেওয়া হবে না। জালালাবাদ গ্যাসের ঠিকাদার ওয়েছ আহমদ জানান, প্রতিনিয়ত আবেদনকারীদের চাপ সহ্য করতে হচ্ছে। বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় আনা উচিত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে জালালাবাদ গ্যাস গোলাপগঞ্জ অফিসের এক কর্মকর্তা জানান, আবাসিক খাতে সংযোগ বন্ধ ঘোষণার আগে গোলাপগঞ্জ উপজেলায় প্রায় দেড় হাজার আবেদনপত্র জমা পড়ে। এর মধ্যে ডিমান্ডনোটের টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছেন প্রায় চার শতাধিক গ্রাহক।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বিয়ানীবাজারের সিলেটীপাড়া ওয়েলফেয়ার সোসাইটি কমিটি গঠিত

জাফলংয়ের পিয়াইনে নিখোঁজ এমসি কলেজ শিক্ষার্থী অনিক

বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের ফ্যামিলি নাইট উদযাপন

লন্ডনে সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব'র চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ড্র ও চ্যারিটি টুর্নামেন্ট পুরুস্কার বিতরণ

পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের নির্দেশে গুঁড়িয়ে দেয়া হলো সেই ইটভাটা

প্রিয় নুসরাত

ঘোষণাঃ