২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং | ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

একুশে গ্রন্থমেলায় এসেছে বিয়ানীবাজারের আবিদুল ইসলাম রিমনের রম্যগ্রন্থ ‘হিংসে হয়?’

https://i2.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/02/rimon-ntv.jpg?resize=1200%2C630

এবারের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় এসেছে স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান ও রম্য লেখক বিয়ানীবাজারের সন্তান আবিদুল ইসলাম রিমনের প্রথম রম্যগ্রন্থ ‘হিংসে হয়?’। সমসাময়িক প্রেক্ষাপট মাথায় রেখে রম্য গল্প, কৌতুক, ওয়ান লাইনার, স্যাটায়ার, প্যারোডি সমন্বয়ে সাজানো এই বইটি প্রকাশ করেছে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ রাইটার্স গিল্ড। বইটির প্রচ্ছদ এঁকেছেন অপূর্ব খন্দকার। বইটি মেলায় বাংলাদেশ রাইটার্স গিল্ডের ২৮৯ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে।

বইটির ফ্ল্যাপে মীরাক্কেল চ্যাম্পিয়ন আবু হেনা রনি বইটি নিয়ে বলেন,’হিংসে হয়?’ নতুন লেখকদের মনে উৎসাহের বীজ বপন করে দেবে এবং স্ট্যান্ড আপ কমেডি চর্চার জন্য এটা একটা হাতিয়ার বা সম্পদ হবে।

বইটি নিয়ে লেখক আবিদুল ইসলাম রিমন বলেন, ‘হিংসে হয়?’ বইটি আমার প্রথম রম্য গ্রন্ত্র। এই বই পুরোটা গতানুগতিক ধারার বাহিরে লেখা। চেষ্টা করেছি, আমি আমার দেখা সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় আপনাদের সামনে হাস্যরসের মাধ্যমে উপস্থাপন করতে। বইটি পড়ে হাসবেন কি না জানি না, তবে আপনাদের মন ভালো হবে এই আশা করতেই পারি।

আবিদুল ইসলাম রিমন বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের নওয়াগ্রাম এলাকার হাফিজ ফয়জুর রহমান ও হাজেরা বেগম দম্পতির পুত্র। এ সিলেটের মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে বিবিএ (মার্কেটিং) বিভাগে অধ্যয়নরত। কালের কণ্ঠ ও দৈনিক সমকালে রম্য লিখেছেন। তবে তিনি শুধু রম্য লিখতে নয়, বলতেও পছন্দ করেন। আর তাই একজন স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান হিসেবেও দেশব্যাপী পরিচিত। এ পর্যন্ত স্ট্যান্ডআপ কমেডি পারফর্ম করেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) জনপ্রিয় কমেডি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘হাসতে মোদের মানা’তে। পাশাপাশি বাংলাদেশের একমাত্র কমেডি রিয়েলিটি শো এনটিভি মার্সেল হা শো সিজন ৪-এর ছিলেন একজন পারফর্মার।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বিয়ানীবাজারের সিলেটীপাড়া ওয়েলফেয়ার সোসাইটি কমিটি গঠিত

জাফলংয়ের পিয়াইনে নিখোঁজ এমসি কলেজ শিক্ষার্থী অনিক

বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের ফ্যামিলি নাইট উদযাপন

লন্ডনে সাউন্ডটেক ক্যারাম ক্লাব'র চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ড্র ও চ্যারিটি টুর্নামেন্ট পুরুস্কার বিতরণ

পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের নির্দেশে গুঁড়িয়ে দেয়া হলো সেই ইটভাটা

প্রিয় নুসরাত

ঘোষণাঃ