২১শে মার্চ, ২০১৯ ইং | ৭ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সাদা পোশাকে নিউজিল্যান্ড বধের দায়িত্বে ৪ সিলেটি

https://i1.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2019/02/4sylheti-cricketer.jpg?resize=1200%2C630

এক দিনের ক্রিকেটীয় লড়াইয়ে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিপর্যস্ত হয়েছে বাংলাদেশ। এবার আরো ‘কঠিন’ লড়াই। রঙিন পোশাকের খোলস ছেড়ে টাইগারদের নেমে পড়তে হবে সাদা পোশাকের মর্যাদার লড়াইয়ে।

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু হচ্ছে আগামি ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে। প্রথম টেস্টের ভেন্যু হ্যামিল্টনে পৌঁছে গেছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। সাদা পোশাকের লড়াই শুরুর আগে রঙিন পোশাকের লড়াইয়ে বাংলাদেশ একদমই পেরে উঠেনি। সবুজ উইকেটে গতি, সুইং আর বাউন্স দিয়ে বাংলাদেশকে ওয়ানডেতে নাকানি-চুবানি খাইয়েছেন স্বাগতিক বোলাররা, বিপরীতে ব্যর্থ হয়েছেন বাংলাদেশের বোলাররা। ফলাফল তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ।

এবার শুরু পাঁচ দিনের লড়াইয়ের। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের তাই আবারো পরীক্ষা দিতে হবে কিউ বোলারদের সামনে। গতি, সুইং আর বাউন্সে কাবু হবেন নাকি আক্রমণাত্মক হয়ে মান রক্ষা করবেন সেটা হয়তো সময়েই বলে দিবে। প্রতিপক্ষের বোলাররা যেখানে হয়ে উঠবেন অপ্রতিরোধ্য, বাংলাদেশের বোলাররা, বিশেষ করে পেসাররা কি করবেন?

টাইগারদের স্কোয়াডে থাকা তিনজনই পেসারে বয়েস তরুণ, জাতীয় দলে নতুন। তিনজনই আবার সিলেটের। আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী, সৈয়দ খালেদ আহমদ ও এবাদত হোসেন। বৃহত্তর সিলেটের এই তিন পেসারের উপরেই নির্ভর করছে বাংলাদেশের বোলিং লাইন। স্কোয়াডে থাকা একমাত্র অভিজ্ঞ পেসার মুস্তাফিজুর রহমান কতটুকু নিয়ে যাবেন দলকে, তাঁকে কেমন সঙ্গ দিতে পারবেন অন্য পেসাররা সেটাই এখন ভাবছে টিম ম্যানেজম্যান্ট। স্পিনেও বাংলাদেশ হারিয়েছে প্রধান শক্তিকে। সাকিব আল হাসান যে স্কোয়াডেই নেই। তরুণ নাঈম হাসান আর মেহেদী হাসান মিরাজদের কাঁধে তাই বড় দায়িত্ব আছে কিউ সিরিজে।

এবাদত হোসেন এখনো আছেন অভিষেকের অপেক্ষায়। পেসার হান্ট থেকে দেশসেরা গতি তারকার খেতাব নিয়েই এসেছেন আলোচনায়। বিপিএলে ১৪০/১৪৫’র উপরে গতিতে বল করে নিজের সক্ষমতা দেখিয়েছেন। পেস সহায়ক কিউদের উইকেটে সুযোগ পেলে তিনি কতটুকু করতে পারবেন দলের জন্য, সেটা নিয়েই ভাবছেন ক্রিকেট প্রেমীরা।

সৈয়দ খালেদ আহমদও দুর্দান্ত গতির বোলার। ঘরের মাঠে একমাত্র টেস্টেও দেখিয়েছেন গতি আর বাউন্সের ঝলক। নিউজিল্যান্ডের পেস বান্ধব উইকেটে নিজেকে চেনানোরও সুযোগ পাচ্ছেন তিনি। জাতীয় দলের টেস্ট স্কোয়াডে কিছুটা নিয়মিত হচ্ছেন আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী। তিন টেস্ট খেলা রাহী ধারাবাহিক ভাবে লাইন লেংন্থ টিক রেখে বল করতে পারেন। মুস্তাফিজের পর তার উপরেই হয়তো সবচেয়ে বেশি ভরসা টিম ম্যানেজম্যান্টের। ঘরোয়া ক্রিকেটে বারবার সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী বোলার হয়ে জাতীয় দলে আসা রাহী নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে তাই সুযোগ পাবেন নিজেকে জাতীয় দলে স্থায়ী করে রাখার। কিউ সফর তাই এই তিন সিলেটীর জন্য হতে পারে সুখকর।

বাংলাদেশ টেস্ট স্কোয়াড- তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, মোহাম্মদ মিঠুন, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহীম, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম, এবাদত হোসেন চৌধুরী, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, নাঈম হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী ও সৌম্য সরকার।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

প্রতিদ্বন্দ্বি খছরুল হক’র বাড়িতে ভাইস চেয়ারম্যান জামাল

গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

বিলপার প্রিমিয়ার লিগের ৫ম আসরের ফাইনাল আগামীকাল বৃহস্পতিবার

বিয়ানীবাজার-বহরগ্রাম সড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটি, ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছেন স্থানীয়রা

বিয়ানীবাজারের কুশিয়ারা নদীতে জেলেদের জালে বিশাল বাঘ আইড়

বড়লেখায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৭৫ ভোটে জয়ী তাজ

ঘোষণাঃ