২০শে মে, ২০১৯ ইং | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিয়ানীবাজারে পল্লব গ্রুপের মিছিলে পুলিশি বাধা।। সমাবেশ পন্ড, হাতাহাতি ও চেয়ার ছুড়াছুড়িতে আহত ৪

https://i0.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2018/12/65565665656565.jpg?resize=1200%2C630

বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়াম্যান আবুল কাশেম পল্লব নেতৃত্বাধীন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মিছিল পুলিশি বাধায় পন্ড হয়েছে। মিছিলটি  পৌরশহরে কলেজ রোড, পোস্ট অফিস রোড ও উত্তরবাজার প্রদক্ষিণ করে দক্ষিণ বাজারের নির্ধারিত স্থানে পল্লব গ্রুপ সমাবেশ করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। এতে নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের বাগবিতণ্ডা, হাতাহাতি ও চেয়ার ছুড়াছুড়ি ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ৪জন আহত হন।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের মিছিলে পুলিশি বাঁধা, লাঠিচার্জ

আজ রবিবার (২ ডিসেম্বর) বেলা আড়াইটায় বিয়ানীবাজার পৌরশহরের দক্ষিণবাজারে এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

আবুল কাশেম পল্লবকে সমাবেশ না করার নির্দেশ দিচ্ছেন থানার ওসি অবনী শংকর কর

পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ব্যানারে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিলে যোগ দেন। মিছিলটি দক্ষিণবাজার থেকে শুরু হয়ে কলেজ রোড, পোস্ট অফিস, উত্তরবাজার ঘরে দক্ষিণবাজারের সমাবেশ স্থলে গেলে পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। এতে নেতাকর্মী ও পুলিশের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে নেতাকর্মীরা চেয়ার ছুড়াছুড়ি করেন। বিয়ানীবাজার থানার ওসি অবনী শংকর কর, ওসি তদন্ত জাহিদুল হকসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। প্রায় আধঘন্টা উত্তেজনার পর পরিস্থিতি শান্ত হয়। পুলিশ উত্তেজিত নেতাকর্মীকে সরিয়ে দিতে লাঠিচার্জ করে। পুলিশের লাঠিচার্জে ৪ নেতাকর্মী আহত হন।

আহত স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী সুমনের মাথা ফেটে রক্ত ঝরছে

আহতরা হলেন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী সুমন আহমদ এবং ছাত্রলীগ কর্মী জুয়েল আহমদ। আহতদের মধ্যে সুমনের মাথা ফেটে রক্ত ঝরতে দেখা যায়। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

সমাবেশকে কেন্দ্র করে সেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের মধ্যকার বাকবিতন্ডা, উত্তেজনা

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আবুল কাশেম পল্লব বলেন, বিজয়ের মাস উপলক্ষে পৌরশহরে বের করা স্বেচ্ছাসেবক লীগের মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। মিছিলটি কলেজ রোড ঘুরে পোস্ট মোড়ে যেতেই পুলিশ কোন ধরনের উস্কানিছাড়া লাঠিচার্জ করে। সেখান থেকে দক্ষিণবাজার মিছিল নিয়ে ফিরে আসলে পুলিশ আচমকা নেতাকর্মীদের ঘিরে উত্তেজনা ছড়ায়। তিনি এরকম ঘটনাকে জঘন্য আখ্যায়িত করে বলেন, নির্বাচনের কোন বিধি আমরা ভঙ্গ করিনি। কিন্তু পুলিশ অযাচিতভাবে আমাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা করেছে।

পুলিশের সাথে সেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বাকবিতন্ডা, স্তূপকৃত চেয়ার দিয়েই চলে ছুড়াছুড়ি

বিয়ানীবাজার থানার ওসি অবনী শংকর কর বলেন, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা না নেমে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ পৌরশহরে মিছিল বের করে। মিছিল করতে আমরা বারণ করেছি, বাধা দিয়েছি। তিনি বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তেমন কোন ঘটনা ঘটেনি, পুলিশের কেউ আহতও হয়নি।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

রোটার‍্যাক্ট ক্লাব অব বিয়ানীবাজার’র নগদ অর্থ বিতরণ ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

আর মাত্র ৯দিন... পরিসংখ্যান-সাম্প্রাতিক পারফরমেন্সে এগিয়ে টাইগাররা

গোলাপগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষককের বিরুদ্ধে ছাত্রকে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ

গোলাপগঞ্জে নদীভাঙ্গনে বিলীন হচ্ছে রাস্তা

অস্ত্রসহ বিয়ানীবাজারের দুই যুবক আটক- থানায় হস্তান্তর

বাহাদুরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন

ঘোষণাঃ