১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেটে সিংহভাগ আসনে মনোনয়নযুদ্ধে প্রবাসীরা

https://i0.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2018/09/sylhet-devision.jpg?resize=1200%2C630

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে সিলেট বিভাগের সিংহভাগ আসনে ‘মনোনয়নযুদ্ধে’ নেমেছেন প্রবাসীরা। ১৯ আসনের মধ্যে অন্তত ১৫টিতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি থেকে প্রার্থী হওয়ার লক্ষ্যে তৎপরতা চালাচ্ছেন অর্ধশত প্রবাসী। এর মধ্যে তিনটি আসনের বর্তমান এমপিরা একসময় প্রবাসে ছিলেন; দুটি আসনের সাবেক এমপিও প্রবাসী। আরেকটি আসনের সাবেক এমপি প্রবাসে ছিলেন। বিগত নির্বাচনগুলোতে প্রবাসীদের এমন সাফল্য দেখে প্রার্থী হওয়ার প্রেরণা পাচ্ছেন অন্যরাও। তাদের মধ্যে অনেকেই নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করতে কয়েক বছর ধরে দেশে অবস্থান করছেন। সম্প্রতি নির্বাচনের ডামাডোল বেজে ওঠার পর যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে মনোনয়নযুদ্ধে নামার লক্ষ্যে দেশে ফিরছেন তারা। এমন পরিস্থিতিতে আগামীতে সিলেটে একাধিক আসনে প্রবাসী নেতাদের মধ্যেই মূল ভোটযুদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন সংশ্নিষ্টরা।

সিলেট বিভাগের চার জেলার মধ্যে সিলেট-১ (সদর) আসন ছাড়া এই জেলার বাকি পাঁচটি আসনেই প্রবাসী মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। মৌলভীবাজার জেলার চারটি আসনে এক বা একাধিক প্রবাসী দলীয় মনোনয়ন পেতে সক্রিয় রয়েছেন। সুনামগঞ্জ জেলার পাঁচটি আসনের মধ্যে তিনটি এবং হবিগঞ্জের চারটি আসনের মধ্যে তিনটিতেই প্রবাসী মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। তাদের মধ্যে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি থেকে সবচেয়ে বেশি নেতা মনোনয়নপ্রত্যাশী। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, কাতার, ফ্রান্সসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রবাসী বাঙালিরা নির্বাচনের লক্ষ্যে জন্মভূমিতে ফিরছেন। বছর ধরে অনেকে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকলেও এবার নির্বাচন পর্যন্ত থাকার লক্ষ্যে দেশে আসছেন। বড় দলের প্রবাসী নেতাদের প্রায় সবাই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশার কথাও শুনিয়েছেন।

প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে গত দুটি নির্বাচনে বিজয়ীরা যুক্তরাজ্য প্রবাসী ছিলেন। এই আসনের বর্তমান এমপি জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়া আগামীবারও নির্বাচন করবেন। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এই আসনে বিজয়ী শফিকুর রহমান একসময় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন শফিকুর রহমান। আগামী নির্বাচনে শফিকুর রহমান দলীয় মনোনয়ন চাইলেও তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মাঠে নেমেছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। এ লক্ষ্যে তিনি গত কয়েক বছর ধরেই দেশে নিয়মিত আসা-যাওয়া করছেন। আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে তিনি অবশ্যই নির্বাচন করবেন। এ লক্ষ্যে এলাকায় কাজ করছেন বলেও জানান তিনি।

সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ-বালাগঞ্জ) আসনে নির্বাচনের লক্ষ্যে গত কয়েক বছর ধরেই মাঠে রয়েছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের ত্রাণবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব। এই আসনে বিএনপির হয়ে নির্বাচন করতে চান দলের যুক্তরাজ্য শাখার সাবেক সভাপতি ব্যারিস্টার আবদুস সালাম। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি দেশে এসে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান ও সভা-সমাবেশের মাধ্যমে এলাকায় কৌশলী প্রচার চালিয়েছেন। সিলেট-৪ (জৈন্তাপুর- গোয়াইনঘাট-কোম্পানীগঞ্জ) আসনে জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এ টি ইউ তাজ রহমান। যুক্তরাজ্য প্রবাসী তাজ রহমান কয়েক বছর ধরে বেশির ভাগ সময় দেশে অবস্থান করে এলাকায় কৌশলী প্রচার চালাচ্ছেন। গত নির্বাচনে সিলেট-৪ আসনে ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী হলেও এবার দলীয় মনোনয়ন চাইবেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহমদ। এ লক্ষ্যে কয়েক মাস আগে এলাকা ঘুরে গেছেন তিনি।

সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনের বর্তমান এমপি জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন যুক্তরাজ্য প্রবাসী ছিলেন। গত নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর তিনি জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের হুইপের দায়িত্ব পালন করছেন। তবে আগামী নির্বাচনে এই আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন চান এস এম জাকির হোসেন ও সাব্বির আহমদ। জকিগঞ্জ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ বর্তমানে ফ্রান্স প্রবাসী। অন্যদিকে যুক্তরাজ্য প্রবাসী জাকির হোসেন সম্প্রতি জাপা প্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নির্দেশে নির্বাচনের লক্ষ্যে দেশে ফিরেছেন বলে দাবি করেছেন। জাকির হোসেন মাঠে নামার পর জকিগঞ্জ ও কানাইঘাটে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছেন। কয়েক দিন আগে কানাইঘাটে একই স্থানে সেলিম উদ্দিন ও জাকির হোসেনের উদ্যোগে পৃথক সমাবেশ আহ্বান করা হলেও উভয় পক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়।

সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন দলের কানাডা শাখার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন। তিনি বেশ কয়েক বছর ধরেই দেশে অবস্থান করে সম্ভাব্য নির্বাচনী এলাকায় কৌশলী প্রচার চালিয়ে আসছেন। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আফসর খান সাদেক ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল হাশিম মামুন এই আসনে দলের মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা শফিক উদ্দিন একই লক্ষ্যে মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। এই আসনে বিএনপির মনোনয়ন চাইছেন জেলা ছাত্রদলের সাবেক দুই সভাপতি এমরান আহমদ চৌধুরী ও ফয়সল আহমদ চৌধুরী। বর্তমানে সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী ও সদস্য ফয়সল আহমদ চৌধুরী মাঝে কয়েক বছর যুক্তরাজ্যে ছিলেন। অবশ্য সাম্প্রতিক সময়ে তারা দু’জনই দেশে অবস্থান করছেন।

মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ি) আসনে বিএনপির মনোনয়ন চাইবেন কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক কাতার প্রবাসী শরিফুল হক সাজু।

মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনে সাবেক এমপি এম এম শাহীন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী। বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী এই নেতা এখনও আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকেন। এখানে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন আতাউর রহমান। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আতাউর রহমান আগামী নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহী। মৌলভীবাজার-৩ (সদর-রাজনগর) আসনে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এম এ রহিম শহীদ ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবদুল মালিক তরফদার শোয়েব মনোনয়নপ্রত্যাশী। সাবেক মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী মারা যাওয়ার পর উপনির্বাচনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার ফরাসত আলী। এই আসনে যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মহিদুর রহমান মনোনয়নপ্রত্যাশী। যুক্তরাজ্য প্রবাসী জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন জিপু মৌলভীবাজার-৪ আসনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী।

হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের বর্তমান এমপি মুনিম চৌধুরী বাবু যুক্তরাজ্য প্রবাসী ছিলেন। জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের পাশাপাশি তিনি হবিগঞ্জ জেলা শাখার উপদেষ্টার দায়িত্বে আছেন। আগামীতে তার বদলে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পেতে সক্রিয় যুক্তরাজ্য প্রবাসী কেন্দ্রীয় নেতা এম এ হামিদ চৌধুরী। এই আসনের সাবেক এমপি বিএনপির শেখ সুজাত মিয়া যুক্তরাজ্যে চলে গেলেও তিনি আগামীতেও মনোনয়নপ্রত্যাশী। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য প্রবাসী শেখ মহিউদ্দিন আহমদ এই আসনে নির্বাচনের লক্ষ্যে মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। হবিগঞ্জ-২ (বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনে বিএনপির হয়ে নির্বাচন করতে চান সৌদি আরব (পশ্চিমাঞ্চল) শাখার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য আবদুল্লাহ মুকিব। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চান যুক্তরাজ্য শাখার উপদেষ্টা ড. শাহনেওয়াজ ও ব্যারিস্টার এনামুল হক। হবিগঞ্জ-৩ (সদর-লাখাই) আসনে যুক্তরাজ্য প্রবাসী জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা এম এ মুনিম চৌধুরী বুলবুল নির্বাচনে আগ্রহী।

সুনামগঞ্জ-২ (দিরাই-শাল্লা) আসনে যুক্তরাজ্য জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি সামছুল হক চৌধুরী ও যুক্তরাজ্য যুবলীগ নেতা ডালটন তালুকদার আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী। সুনামগঞ্জ-৩ (দক্ষিণ সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় আছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান ফারুক ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আবুল কাশেম। সুনামগঞ্জ-৫ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী আইয়ুব করম আলী।

সূত্র- দৈনিক সমকাল

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বিয়ানীবাজারে নবগঠিত চারখাই ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির একসঙ্গে ১৩ জনের পদত্যাগ

সিলেট-০৬ আসনে মনোনয়ন চান সাবেক ৭ ছাত্রনেতা

সিলেটে একাধিক আসনে থাকবে না বড় দলের প্রার্থী।। সিলেট-০৬ আসনও আলোচনায়

আছিরগঞ্জ বাজারে ছাত্রলীগ-স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিক্ষোভ মিছিল

বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরি

সিলেট-০৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী চায় গোলাপগঞ্জ উপজেলা ও পৌর ছাত্রদল

ঘোষণাঃ