১৬ই আগস্ট, ২০১৮ ইং | ২রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সিলেট নগরীতে ট্রাফিক সপ্তাহেও অবাধে চলছে সিএনজি অটোরিকশা

https://i2.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2018/08/cng.jpg?resize=720%2C400

অদৃশ্য শক্তির মাধ্যমে সিলেট নগরীতে চলছে নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা। পুলিশের চোখের সামন দিয়ে চলাচল করলেও পুলিশ তা দেখতে পায়না। লোক দেখানো চেকপোস্ট আর তল্লাশি করছে ট্রাফিক বিভাগ। নেই আইনের যথাযথ প্রয়োগ। এমনটাই মন্তব্য করেন সিলেট নগরীতে বসবাসকারি ফয়ছল আহমদ।

নগরীর মোড়ে মোড়ে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে চলছে অপরিকল্পিত ট্রাফিক সপ্তাহ। পরিক্ষা করা হচ্ছে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস, ইনসুরেন্স ও ড্রাইভিং লাইন্সেস।ট্রাফিক বিভাগের এতো তৎপরতার পর সিলেট নগরীতে চলছে নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা। প্রশাসনকে অনেকটা বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দাপুটের সাথে নগরীর বিভিন্ন সড়কে চলছে এসব নিবন্ধনহীন (সিএনজি)অটোরিকশা।

ট্রাফিক সপ্তাহের ৫ম দিন বৃহস্থপতিবারও নগরীর বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্যে নিবন্ধনহীন অটোরিকশা চলতে দেখা গেছে। নগরীর ব্যস্ততম পয়েন্ট আম্বরখানা, শিবগঞ্জ ও দক্ষিণ সুরমার ওভারব্রিজের নিচে অবাধে চলাচল করছে এসব গাড়ি।

পুলিশ বলছে, নগরীতে কোনো নিবন্ধনহীন অটোরিকশা চলছে না। অপরদিকে গাড়ির চালকদের দাবি, তারা প্রসাশনকে টাকা দিয়ে টোকনের মাধ্যমে নিবন্ধনহীন (সিএনজি)অটোরিকশা নগরীতে চালাচ্ছেন। এই টোকন দেখালে চালকদের লাইসেন্সও প্রয়োজন হয় না। শুধু সমিতির সদস্য হলেই এসব গাড়ি চালানো যায়। ফলে এতো নিরাপত্তার মধ্যেও তারা কোনো ভোগান্তিও পোহাতে হচ্ছে না।

সূত্র জানায়, সিলেট শহরে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা চলাচল করে। এর মধ্যে সিলেট অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের আওতাধীন রেজি নং-৭০৭-এর আম্বরখানা স্ট্যান্ডে রয়েছে ১ হাজার ৮শ টি নিবন্ধনহীন অটোরিকশা। এসকল গাড়ি নগরীর আম্বরখানা থেকে শুরু করে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ-গোয়াইনঘাট-বিছনাকান্দি রোডে চলাচল করে। নগরীর শিবগঞ্জ সুরমা সিএনজি ফিলিং স্টেশন থেকে তামাবিল রোডে চলে প্রায় ১ হাজার নিবন্ধনহীন অটোরিকশা এবং দক্ষিণ সুরমার ওভারব্রিজের নিচ থেকে গোলাপগঞ্জ, চারখাই, বিয়ানীবাজার, ফেঞ্চুগঞ্জ ও জকিগঞ্জ রোডে চলে প্রায় ১ হাজার ৭শ নিবন্ধনহীন অটোরিকশা।

এ বিষয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র ফয়ছল আহমদ বলেন, দেশে আইন আছে কিন্তু তার যথাযথ প্রয়োগ হয় না।

বিআরটিএ’তে নিবন্ধনের আবেদন করেই নগরীর রাস্তাগুলোতে অবাধে চলাচল করছে সিএনজি অটোরিকশা গুলো। অনেকে তো নিবন্ধনের আবেদন ই করছে না। কিন্তু আইনে আছে বিআরটিএ’র অনুমতি ছাড়া কোনো গাড়ি রাস্তায় চলাচল করতে পারবে না।রাস্তায় চলতে হলে থাকতে হবে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস, ইনসুরেন্স ও ড্রাইভিং লাইসেন্স । এসবের কিছুই না নিয়ে চালকরা অদৃশ্য শক্তির জোরে চলছে নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা।

এদিকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) সিলেটের সহকারী পরিচালক এ এম মাহমুদ কবির বলেন, সিলেটে বৈধ সিএনজি চালিত অটোরিকশা রয়েছে ২১ হাজার ২৩২ টি। এর মধ্যে প্রায় ৫ বছর আগে দেড় হাজারের উপরে সিএনজি অটোরিকশার নিবন্ধনের জন্য আবেদন জমা পড়ে আছে। এসব আবেদনের কোন সুরাহা এখনও হয়নি।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সিলেট জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের শাখা সভাপতি বা শ্রমিক নেতাদের ছত্রছায়ায় নগরীতে চলাচল করছে এসব নিবন্ধনহীন অটোরিকশা। টোকন মাধ্যমে এসকল গাড়ির বৈধতার বিনিময়ে তারা হাতিয়ে নিচ্ছেন মোটা অংকের টাকা।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক দক্ষিণ সুরমার ওভারব্রিজের নিবন্ধনহীন অটোরিকশার চালক বলেন, টাকা দিয়ে টোকেনের মাধ্যমে এই গাড়ি রোডে চলছে । আর এই টোকেন ‘পুলিশ টোকেন’ হিসাবে পরিচিত।

আর এই ‘পুলিশ টোকেন’ মাধ্যমে নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা পুলিশের সহযোগীতায় নগরীতে চলার বৈধতা দিচ্ছেন সিলেট অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের আওতাধীন রেজি নং-৭০৭-এর আম্বরখানা স্ট্যান্ডের সভাপতি মো. আবুল খান, শিবগঞ্জ সুরমা সিএনজি ফিলিং স্টেশন থেকে তামাবিল রোডে নগরীতে চলার বৈধতা দিচ্ছেন জয়নাল, নুরুল ও নাজিম এবং দক্ষিণ সুরমার ওভারব্রিজের নিচ থেকে নগরীতে চলার বৈধতা দিচ্ছেন শামিম আহমদ।

পুলিশ টোকেন’ মাধ্যমে নিবন্ধনহীন অটোরিকশা আম্বরখানা স্ট্যান্ডে চলাচল করছে স্বীকার করে সভাপতি মো. আবুল খান বলেন, আমাদের এখানে নিবন্ধনহীন সিএনজি অটোরিকশা রয়েছে। আমাদের গাড়িগুলো আম্বরখানা পয়েন্টে যায় না। নগরীর ভিতরে শুধু গ্যাস নেয়ার জন্য আসে। তবে তাদের কতটি নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা রয়েছে তা জানাতে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেছেন।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার (ট্রাফিক) তোফায়েল আহমদ বলেন, ‘পুলিশ টোকেনের’ মাধ্যমে নগরীতে কোনো নিবন্ধনহীন (সিএনজি) অটোরিকশা চলাচল করছে না ।

তিনি বলেন, চলছে ট্রাফিক সপ্তাহ। ‘পুলিশ টোকেন’ মাধ্যমে নিবন্ধনহীন অটোরিকশা চলাচলেরতো প্রশ্নই উঠেনা। তবে পুলিশকে লুকিয়ে কেউ নিবন্ধনহীন অটোরিকশা চালাতে পারে। ট্রাফিক বিভাগকে বলা আছে, নিবন্ধনহীন অটোরিকশা দেখলেই আটক করার জন্য।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বিয়ানীবাজার জনতা ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানি ও অশোভন আচরনের অভিযোগ

খলিল চৌধুরী আদর্শ বিদ্যানিকেতনের প্রয়াত শিক্ষক মোফাখখারুল হক শিশির স্মরণে দোয়া মাহফিল

বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক জামাল হোসেনের মোটর সাইকেল চুরি

কানাইঘাটে জমি নিয়ে দু'পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

৫০ বছর পূর্ণ করলো বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজ

কলেজ রোডের নাম পরিবর্তন ও সড়কের পাশে বর্জ্য- যুক্তরাজ্যে মাথিউরা ইউনিয়নবাসীর প্রতিবাদ-নিন্দা

ঘোষণাঃ