২১শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

পৃথক ইউনিয়নের দাবিতে আন্দোলনে নামছে বৈরাগীবাজারবাসী

https://i0.wp.com/beanibazarnews24.com/wp-content/uploads/2017/11/boiraghi.png?resize=720%2C400

বিয়ানীবাজার উপজেলার ৫নং কুড়ারবাজার ইউনিয়ন থেকে পৃথক ইউনিয়ন গঠনের দাবিতে আন্দোলনে নামছে বৈরাগীবাজারবাসী। দীর্ঘদিন থেকে বৈরাগীবাজার এলাকার চার ওয়ার্ডের ২২ হাজার মানুষ বঞ্চনার শিকার হওয়ার ক্ষোভ থেকে বৈরাগীবাজার নামে পৃথক ইউনিয়ন গঠনের দাবি জানাচ্ছেন স্থানীয়রা। সে লক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে পৃথক ইউনিয়নের দাবিতে বৈরাগীবাজারে সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবে। ৬নং বৈরাগীবাজার ইউনিয়ন বাস্তবায়ন কমিটি এ সাধারণ সভার আয়োজন করেছে।

স্থানীয়রা জানান, কুড়ারবাজার ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলকাছ আলী পৃথক ইউনিয়ন গঠনের দাবিতে ২০১১ সালের ২৯ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে একটি আবেদন দায়ের করেন। ২০১৬ সালে কুড়ারবাজার ইউনিয়নের নির্বাচন প্রাক্কালে উচ্চ আদালতে এ বিষয়ে একটি রীট আবেদন (২৩১৩/১৬) দায়ের করেন। দীর্ঘদিন থেকে বৈরাগীবাজারবাসীর দাবিকৃত পৃথক ইউনিয়ন গঠন না হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

ইউনিয়নের ৬, ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডগুলো পূর্ব লাউজারি থেকে আঙ্গারজুর এবং কুশিয়ারা নদীর তীর থেকে সড়ক ভাংনি ও আরিজখাঁ টিলা পর্যন্ত বিস্তৃত। চতুর্থ পাশের এ সীমানার আয়তন প্রায় ৩৭ বর্গ কিলোমিটার।

এদিকে পৃথক ইউনিয়ন গঠন এবং ইউনিয়ন পরিষদের জন্য ৫২ শতক জায়গা ২০১১ সালে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের নামে রেজিস্টার করে দিয়েছেন এলাকাবাসী। পৃথক ইউনিয়ন গঠনে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের যে সকল শর্ত রয়েছে- সেগুলো দাবিকৃত বৈরাগীবাজার ইউনিয়নে বিদ্যমান বলে দাবি স্থানীয়দের।

সমাজ সেবক ও বৈরাগীবাজার কলেজের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আকতারুজ্জামান আজব আলী বলেন, আমরা নিপিড়নে শিকার। আমাদের চার ওয়ার্ডের ২২ হাজারের বেশি জন সংখ্যা রয়েছে। এ জনগোষ্টির অর্ধেক দারিদ্র সীমায় বসবাস করে। অথচ সে তুলনায় ইউনিয়ন থেকে পর্যাপ্ত সহায়তা পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি বলেন, লোক সংখ্যা সরকারের নির্দেশনার বেশি রয়েছে। আয়তন এবং রাজস্ব আয়ের বিষয়টিও আমাদের পক্ষে।

লাউঝারি সমাজ কল্যাণ সংস্থার ক্রীড়া সম্পাদক হোসেন আহমদ বলেন, বৈরাগীবাজার থেকে ইউনিয়ন অফিসের দুরত্ব, যাতায়াত অসুবিধার পাশাপাশি আমাদের দরিদ্র মানুষগুলো দীর্ঘদিন থেকে বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন। আমরা এর থেকে পরিত্রাণ পেতে বৈরাগীবাজার নামে পৃথক ইউনিয়ন গঠনের জোর দাবি জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মু: আসাদুজ্জামান বলেন, পৃথক ইউনিয়ন গঠনের বিষয়টি তদন্তাধীন। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর আইনানুগ বিষয়ের আলোকে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আমরা আইনের বাইরে গিয়ে কিছু করার সুযোগ নেই। তিনি জানান, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবুল মনসুর আসজাদ স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ইউনিয়ন গঠনের দাবির বিষয়টি তদন্ত করছেন।

A+ A-
Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ সংবাদ

বিয়ানীবাজারে বয়সভিত্তিক ক্রিকেট কোচিং শুরু করছে 'কোয়াব' ।। রেজিস্ট্রেশন আহবান

বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে সিরিজ- টাইগারদের শুভ সূচনা

বড়লেখায় ইয়াবাসহ যুবক গ্রেফতার

ভেঙে গেছে মেসির হাত!

অবশেষে সিলেটে ১৪ শর্তে সমাবেশের অনুমতি পেলো জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট

বিয়ানীবাজারে ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

ঘোষণাঃ